মেইন ম্যেনু

চাঁদাবাজির জন্যই সড়কের পাশে ছবি দিয়ে বিলবোর্ডে

সড়ক ও মহাসড়কের পাশে বিলবোর্ডে লাগানোর উদ্দেশ্যকে চাঁদাবাজি উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এই কাজ থেকে সবাইকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকা মুলিবাড়ি রেলক্রসিং এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘মহাসড়কগুলোতে কোনো বিলবোর্ড থাকা উচিত নয়। চাঁদাবাজরাই সংসদ সদস্য ও মন্ত্রীদের সঙ্গে নিজেদের ছবি দিয়ে বিলবোর্ড বানিয়ে তা মহাসড়কের পাশে লাগায়। আসলে তারা নেতা হওয়ার জন্য নয়, চাঁদাবাজি করতেই এসব করে।’

এ সময় সেতুমন্ত্রী জানান, আগামী দুমাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে হাটিকুমরুল পর্যন্ত দুর্ঘটনাপ্রবণ চারটি এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আদলে নিউ জারসি ব্যারিয়ার (কংক্রিটের ডিভাইডার) নির্মাণ করা হবে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে কাজ শুরু করে ঈদুল আজহার আগেই তা শেষ করা হবে।

ভবিষ্যতে এ মহাসড়কটি চার লেনে রূপান্তরিত করা হবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ইতিমধ্যে গাজীপুরের চৌরাস্তা থেকে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা পর্যন্ত চার লেনের নির্মাণকাজের দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। পরবর্তীতে এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে হাটিকুমরুল পর্যন্ত চার লেনের কাজ করা হবে। পর্যায়ক্রমে যতগুলো মহাসড়ক রয়েছে প্রতিটিকেই চার লেনে রূপান্তরিত করা হবে।

সড়ক বিভাগের রাজশাহী বিভাগীয় অতিরিক্ত নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুস সালাম, ময়মনসিংহ জোনের প্রধান প্রকৌশলী শাহাব উদ্দিন খান, সিরাজগঞ্জের জেলা প্রশাসক বিল্লাল হোসেন, জেলা পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমদ, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ ও সেতু বিভাগের প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদসহ বিভিন্ন বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

ব্যাটারিচালিত যানবাহন মহাসড়কে যানজট সৃষ্টিসহ দুর্ঘটনার কারণ উল্লেখ করে মহাসড়কে এসব যান চলাচল বন্ধ করতে প্রশাসনকে নির্দেশ দেন মন্ত্রী।