মেইন ম্যেনু

চাইলে আপনিও রাস্তা-ঘাঁটে যে স্থানের নারীদের সঙ্গে যৌনসম্পর্ক করতে পারেন

আবারও জার্মানির রাস্তায় এক নারীকে যৌন নির্যাতন করা হলো। নির্যাতনকারী ওই ব্যক্তি একজন অভিবাসী। তবে তিনি কোন দেশের নাগরিক তা এখনো জানা যায়নি।

গত রবিবার ২৫ বছরের ওই নারী ডটমুন্ড রেল স্টেশন থেকে হেঁটে তার বাসায় ফিরছিলেন। এসময় ওই অভিবাসী তাকে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়।

শুধু তাই নয়, ওই নারীকে তিনি বলেন, এই শহরে নতুন এসেছি। শুনেছি এখানে চাইলেই জার্মান নারীদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করা যায়। এরপর ওই অভিবাসী তরুণীর পেছন পেছন হাঁটতে থাকে।

একমসয় তিনি ওই নারীকে টাকা দিয়ে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেন। এবং তার সঙ্গে ঘুমাতে বলেন। কিন্তু সে অস্বীকৃতি জানালে তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়।

ওই অভিবাসী ভিকটিমকে যৌন নির্যাতনে আগে থেকেই অনুসরণ করছিলো। এসময় সে তরুণীটিকে জানায়, সম্প্রতি তিনি এই শহরে এসেছেন। তার ধারণা, এখানে চাইলেই জার্মান নারীদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করা যায়।

এরপরেই সে টাকার বিনিময়ে ওই নারীকে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়।

জার্মানিতে ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনের সময় শতাধিক যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটে। জার্মানির কোলন শহরে নববর্ষের রাতে যৌন হামলার ঘটনায় একজন আলজেরীয় আশ্রয়প্রার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ওই হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে প্রথমবারের মতো কাউকে গ্রেপ্তার করা হলো।

এ সময় চুরির অভিযোগে আরো একজন আলজেরীয়কে গ্রেপ্তার করা হয়। কোলনের নববর্ষের রাতের ঘটনায় আট শতাধিক অভিযোগ পেয়েছে পুলিশ। এদের মধ্যে ৪৯৭জন নারী যৌন হামলার অভিযোগ এনেছেন।

পুলিশ বলছে, সেদিন রাতে ৭৬৬টি অপরাধের ঘটনা ঘটেছে, যার মধ্যে তিনজনকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনার পর জার্মানিতে শরণার্থী বিরোধী মনোভাব বাড়ছে।



« (পূর্বের সংবাদ)