মেইন ম্যেনু

চাটমোহরে অবৈধ সুঁতিবাঁধ অপসারণ, জরিমানা আদায়

পাবনার চাটমোহর উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা গত বুধবার ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে উপজেলার নিমাইচড়া ইউনিয়নের মির্জাপুর ও চিনাভাতকুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১টি সুঁতি বাঁধ অপসারণ করেছে। আটক করা হয়েছে একটি বাদাই জাল। এক ব্যক্তিকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।

গত বুধবার সকালে মির্জাপুর বিল থেকে নৃপেন্দ্রনাথ হলদারের বাদাই জাল আটক করা হয়। কর্মকর্তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে জাল ফেলে পালিয়ে যায় মৎস্য আহরণকারীরা। চিনাভাতকুর গোরস্থান এলাকায় অরুন হলদারের সুঁতি বাঁধ অপসারণ করা হয়। এ সময় অরুন হলদারকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অপরদিকে গত মঙ্গলবার বরদানগর এলাকার গুমানী নদী থেকে ১টি অবৈধ সুঁতি বাঁধ অপসারণ করা হয়। এ সময় এক ব্যক্তিকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেহেলী লায়লা এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ মিজানুর রহমান থানা পুলিশের সহায়তায় বরদানগর এলাকায় অভিযান চালান।

এ সময় গুমানী নদী থেকে মজিবর রহমানের ছেলে মনির উদ্দিন মনির সুঁতি বাঁধ অপসারণ করেন। ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বেশ কিছু পরিমাণ মাছ জব্দ করে তা দরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

চাটমোহরের বিভিন্ন বিল ও নদীতে বেশ কয়েকটি অবৈধ সুঁতিবাঁধ স্থাপন করে প্রভাবশালীরা অবাধে মৎস্য নিধন করে চলেছেন। এতে করে সময়মত পানি নিষ্কাশন না হলে আগামী রবিশস্য আবাদ ব্যাহত হবে।