মেইন ম্যেনু

চার ঘণ্টার ব্যবধানে একই গ্রামে দুই শিশুকে ধর্ষণ

মাদারীপুর জেলার শিবচরে একই গ্রামে মাত্র চার ঘণ্টার ব্যবধানে দুই শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

জেলার শিবচর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের তাজপুর গ্রামে গতকাল দুপুর ও বিকেলে পৃথক দুটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একজনকে সোমবার সন্ধ্যায় এবং অপরজনকে মঙ্গলবার সকালে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে ধর্ষণের শিকার ওই দুই শিশুকে প্রথমে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে তাদের অবস্থার অবনতি হলে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

শিবচর থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার দুপুরে দত্তপাড়া ইউনিয়নের তাজপুর গ্রামের চান মিয়ার ছেলে শান্ত (১৮) প্রতিবেশী আট বছরের এক শিশুকে ফুসলিয়ে নিজেদের ঘরে এনে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটির চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে শান্ত পালিয়ে যায়।

তাৎক্ষণিক শিশুটিকে উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

অপরদিকে একই দিন বিকেলে ওই গ্রামের হিরু মুন্সীর ছেলে ইব্রাহিম মুন্সী (১৯) প্রতিবেশীর সাত বছর বয়সী এক শিশুকে পাশের একটি পাট ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটি বাড়ি ফিরে অসুস্থ হয়ে পড়লে বিষয়টি জানাজানি হয়।

পরে তাকেও শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে শিশু দুটি মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় সোমবার বিকেলেই দত্তপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির তদন্ত কর্মকর্তা শাজাহান মিয়া ধর্ষণের অভিযোগে শান্তকে এবং আজ সকালে ইব্রাহিমকে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার সকালে ধর্ষণের শিকার শিশু দুটির বাবা শিবচর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এদিকে দুই শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে এলাকায়।

শিবচর থানার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের মিয়া বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের কাজ চলছে।

শিবচর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাকির হোসেন মোল্লা জানান, পুলিশ দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে। এ ব্যাপারে শিবচর থানায় পৃথক দুটি ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যেই তাদের মাদারীপুর জেলহাজতে পাঠানো হবে।