মেইন ম্যেনু

চিকিৎসায় নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী

চিকিৎসাশাস্ত্রে চলতি বছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন জেফরি সি হল, মাইকেল রসবাশ এবং মাইকেল ডব্লিউ ইয়ং। স্থানীয় সময় সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় (বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টা) সুইডেনের স্টকহোমে নোবেল পুরস্কার কমিটি যৌথভাবে এই তিন মার্কিন নোবেল জয়ীর নাম ঘোষণা করে।

পুরস্কার হিসেবে তারা ৮০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার পাবেন। বায়োলজিকাল ক্লকস নিয়ন্ত্রণে মলিকিউলার মেকানিজম আবিষ্কারের স্বীকৃতি স্বরূপ তারা এই পুরস্কার পেয়েছেন। মানুষ, উদ্ভিদ এবং অন্যান্য প্রাণী কীভাবে বিভিন্ন অভ্যাসে অভ্যস্ত হয় সেবিষয়ে গবেষণায় উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন তারা।

নোবেল কর্তৃপক্ষ তাদের ওয়েবসাইটে বলছে, আমরা জানি যে মানুষসহ অন্যান্য প্রাণীর অভ্যন্তরীণ একটি বায়োলজিক্যাল ক্লকস আছে। এই ক্লকস প্রাত্যহিক জীবনের নানা ছন্দের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে সহায়তা করে।

কিন্তু এই ক্লকস আসলে কীভাবে কাজ করে। জেফরি সি হল, মাইকেল রসবাশ এবং মাইকেল ডব্লিউ ইয়ং গবেষণার মাধ্যমে আমাদের বায়োলজিক্যাল ক্লকসের ভেতরে প্রবেশ করতে সক্ষম হয়েছেন এবং এর অভ্যন্তরীণ কার্যকলাপ সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিয়েছেন। এর আগে ২০১৬ সালে চিকিৎসায় নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন জাপানি বিজ্ঞানী ইয়োশিনোরি ওসোমি।

মঙ্গলবার পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে। ১৯০১ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত চিকিৎসাশাস্ত্রে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়েছে ১০৮ বার। এর মধ্যে ১২ বার চিকিৎসার নোবেল পেয়েছেন নারীরা। এছাড়া মাত্র একজন করে বিজয়ী এই পুরস্কার জিতেছেন ৩৯ বার।






মন্তব্য চালু নেই