মেইন ম্যেনু

চিনি আর টুথপেস্ট দিয়ে জেনে নিন আপনি গর্ভবতী কিনা

গর্ভধারণ প্রত্যেক নারীর জন্য অনেক কাঙ্ক্ষিত একটি বিষয়। মাতৃত্ব প্রত্যেক নারীর জীবনে নতুন মাইলফলক নিয়ে আসে। অনেক সময় নারীরা প্রথম কয়েক মাস বুঝতে পারেন না তারা গর্ভবতী কিনা। আবার অনাগত শিশুর নিরাপত্তা চিন্তা করে গর্ভকালীন প্রথম তিন মাস প্রত্যেক নারীকে থাকতে হয় সাবধান। এই সময়ের ছোট একটি ভুল গর্ভপাতের মত মারাত্নক ঘটনাও ঘটাতে পারে। তাই সন্দেহ হওয়ার সাথে সাথে পরীক্ষা করে নিন আপনি গর্ভবতী কিনা। আর এই পরীক্ষাটি আপনি ঘরে করে নিতে পারেন। ঘরোয়া কিছু উপায়ে এটি করা সম্ভব। (যদিও গর্ভবতী কিনা নিশ্চিত হবার সবচাইতে ভালো উপায় হচ্ছে মেডিকেল টেস্ট করানো। যা যে কোন হাসপাতালে গেলেই করা সম্ভব।)

১। টুথপেস্ট

গর্ভধারণ পরীক্ষা করার সবচেয়ে প্রাচীন ঘরোয়া উপায়টি হলো টুথপেস্ট। একটি পরিস্কার পাত্রে আপনার সকালের প্রস্রাবের সাথে অল্প কিছু টুথপেস্ট মিশিয়ে নিন। কিছুক্ষণ এভাবে রেখে দিন। যদি ইউরিন নীল রং ধারণ করে অথবা ফেনা উঠে যায়। তবে বুঝতে হবে আপনি গর্ভবতী। ইউরিনটি যেন সকালের প্রথম ইউরিন হয়। আর অবশ্যই সাদা টুথপেস্ট ব্যবহার করুন।

২। সাবান পানি

সকালের প্রথম ইউরিনের সাথে সাবান পানি মিশিয়ে নিন। ইউরিন এবং সাবান পানি মিশে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। যদি মিশ্রণটিতে বুদবুদ উঠে। তবে আপনি গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই পরীক্ষাটি সবসময় সঠিক ফল দিয়ে থাকে না। এটি করার পর আপনি অন্য আরেকটি পরীক্ষা করে নিতে পারেন।

৩। চিনি

রান্নাঘরের এই উপাদানটি সাহায্য করবে আপনি গর্ভবতী কিনা সেটা পরীক্ষা করার জন্য। এক টেবিল চামচ চিনির সাথে সকালের প্রথম ইউরিন মিশিয়ে নিন। কয়েক মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর লক্ষ্য করুন চিনি ইউরিনের সাথে মিশে গেছে কিনা? যদি মিশে যায় তবে বুঝতে পারবেন আপনি গর্ভবতী নয়, আর যদি ইউরিন জমাট বেঁধে যায় তবে আপনি বুঝতে হবে আপনি গর্ভবতী।

৪। সরিষা পাউডার

বাথটাব বা এক বালতির পানির মধ্যে দুই কাপ সরিষা গুঁড়ো মিশিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিন। এবার এই পানি দিয়ে গোসল করে ফেলুন। সরিষা আপনার শরীরকে গরম করে দিয়ে থাকে। যার কারণে ৪-৫ দিনের মধ্যে আপনার মাসিক হয়ে যাবে। আর আপনি যদি গর্ভবতী হয়ে থাকেন, তবে মাসিক বন্ধ থাকবে।

৫। ব্লিচিং পাউডার

সকালের প্রথম ইউরিন একটি কনটেইনারে রাখুন। এরসাথে এক চা চামচ ব্লিচিং পাউডার মেশান। মিশ্রণটি ফেনা উৎপন্ন করলে বুঝতে হবে আপনি গর্ভবতী।

সূত্র: টপ হেলদি রেমিডিস