মেইন ম্যেনু

চিরিরবন্দরে রমজানকে সামনে রেখে বাজারে ভেজাল পণ্যের কারবারীরা সক্রিয়

মোহাম্মদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুর সহ চিরিরবন্দরে রমজান আসে তো ভেজাল খাদ্যদ্রব্য বাজার সয়লাব হয়ে যায়। রমজানে হরেক রকমের খাবারের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় খাদ্যে ভেজালের নানা ধরণ এবং পরিমাণও বেড়ে যায়। এর সাথে যোগ হয় ফরমালিন মেশানো। এমনিতে সারাবছরই পচনশীল খাদ্যদ্রব্যে অসাধু ব্যবসায়ীরা ফরমালিন মিশিয়ে থাকে। রমজানে এর মাত্রা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। আর এ ক’বছর গ্রীষ্মকালে রমজান হওয়ায় এ সময় মৌসুমী অনেক ফল বাজারে থাকে। এসব ফল ফরমালিনের সাহায্যে তরতাজা রাখে ব্যবসায়ীরা। আর ভোক্তারা এ সবই কিনে খাচ্ছে।

আর মাত্র কয়েকদিন পরই রমজান শুরু। রোজাদাররা রোজা পালনের জন্য নানা প্রস্তুতি নিচ্ছে। বসে নেই ব্যবসায়ীরাও। রমজানে স্বাভাবিক কারণে নানা মুখরোচক খাবারসহ বিভিন্ন খাবারের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীরা খাদ্যদ্রব্য মজুদ করে রাখে। এ সুযোগে অনেকে খাদ্যে ভেজাল মেশায় এবং ফরমালিন মেশায়। ব্যবসার মধ্যে এ অসাধুতা সারাদেশের মধ্যে দিনাজপুর সহ চিরিরবন্দর এর বাইরে নয়।

তাই ভেজালবিরোধী অভিযান মাঝে মাঝে পরিচালনা করলে ব্যবসায়ীরা সচেতন হবেন। এতে ক্রেতাদের সন্দেহ দূর হবে ।
তাই সচেতন মহলের দাবী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পরিচালক (আইন) ও সংশ্লিট প্রসাশন দ্বারা মাঝেমধ্যে ফলের রাসায়নিক দূর করার পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়া উচিত।