মেইন ম্যেনু

চীনকে নিয়ে উদ্বিগ্ন হিলারি

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যিক ও সরকারি তথ্য চুরির জন্য চীনকে দোষারোপ করেছেন মার্কিন প্রাক্তন ফার্স্টলেডি হিলারি ক্লিনটন। একই সঙ্গে চীনের ক্রমবর্ধমান সামরিক শক্তির বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তিনি।

আগামী নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি শনিবার নিউ হ্যাম্পশায়ারে একটি প্রচারণা অনুষ্ঠানে বক্তব্যে চীনকে মার্কিন তথ্য চুরি থেকে বিরত থাকা এবং যুক্তরাষ্ট্রকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান।

প্রাক্তন এ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘চীন সামরিক গুপ্তচরদের দিয়ে গোপন তথ্য চুরি করছে। নিজেদের সুবিধার্থে দেশটি প্রচুর পরিমাণের সরকারি তথ্য ইতিমধ্যে হাতিয়ে নিয়েছে।’

তিনি বলেন, তিনি চীনের শান্তিপূর্ণ আচরণ দেখতে চেয়েছিলেন এবং যুক্তরাষ্ট্রেরও এ ব্যাপারে ‘সম্পূর্ণরূপে সতর্ক’ থাকা প্রয়োজন ছিল।

চলতি বছরের আগের দিকে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি ও বাণিজ্যিক সাইটগুলো হ্যাকিংয়ের শিকার হয়। এ জন্য চীনকে সন্দেহ করা হয়। মার্কিন কর্মকর্তারা সরাসরি এ জন্য চীনকে দায়ী করে বক্তব্যও দেন। তবে চীন তাদের বক্তব্যকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে উড়িয়ে দেয়।

চীনের ক্রমবর্ধমান সামরিক শক্তির বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে হিলারি বলেন, ‘চীনের সামরিক শক্তি খুব দ্রুতভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারা সামরিক আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করছে, যা বিভিন্ন দেশের জন্য হুমকিস্বরূপ। যেসব দেশ যেমন ফিলিপাইন, নিজেদের সম্পদ রক্ষায় প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করছে, তাদের সঙ্গে আমাদের চুক্তি রয়েছে।’

তথসূত্র : বিবিসি।