মেইন ম্যেনু

চীনে এক সন্তান নীতি বাতিল

অবশেষে সরকারিভাবে বাতিল করা হয়েছে চীনের এক সন্তান নীতি। সাড়ে তিন দশক ধরে প্রচলিত এই নীতি থেকে সরে এসেছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটি। দেশটির আইনপ্রণেতাদের জন্য এটি একটি ঐতিহাসিক আইন প্রণয়ন বলে দাবী করা হচ্ছে। আর এর মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে দীর্ঘদিনের এক পুরনো এবং অমানবিক অধ্যায়। নতুন আইনের কারণে চীনা দম্পতিরা দুটি সন্তান গ্রহণ করতে পারবেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

জনসংখ্যা ও পরিবার পরিকল্পনা সংক্রান্ত নতুন আইনে চীনের দম্পতিদেরকে দুই সন্তান গ্রহণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এই আইন পাশ করেছে চীনা সংসদের উচ্চকক্ষে ১৫৯ সদস্যের ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেস স্ট্যান্ডিং কমিটি (এনপিসি)। এনপিসির এই আনুষ্ঠানিকভাবেই এই আইন পাশ করেছেন। এতে কোনো ঝক্কি ঝামেলাই ছিল না। আর কেনইবা থাকবে? এর আগেই তো এই নতুন আইনের পক্ষে সম্মতি দিয়েছিলেন স্বয়ং প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর নেতৃত্বাধীন কমিউনিস্ট পার্টি অফ চায়না।

দীর্ঘ সাড়ে তিন দশকের বেশি সময় ধরে প্রচলিত এই নীতিতে প্রতিরোধ করা গিয়েছিল প্রায় ৪০ কোটি জনসংখ্যা। তবে এর কিছু ক্ষতিকর প্রভাবও পড়েছে। অর্থাৎ জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও বার্ধক্য বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এর ফলে শ্রমিকের ব্যাপক অভাব দেখা দিয়েছে চীনে।