মেইন ম্যেনু

চীনে যৌন সুড়সুড়ির ভঙ্গিতে কলা খাওয়া নিষেধ

যৌন সুড়সুড়ি দেওয়ার ভঙ্গিতে কলা খাওয়ার দৃশ্য ‘লাইভ’ অনলাইনে দেখানো নিষিদ্ধ করেছে চীন। দেশটির ‘নিউ এক্সপ্রেস’ পত্রিকাকে উদ্ধৃত করে বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

শুধু কলা খাওয়ার দৃশ্য নয়, মোজা পরা এবং এ রকম আরো অসঙ্গত যৌন উত্তেজক কোনো কিছুর দৃশ্য লাইভ স্ট্রিমিং করার ওপর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

গত এপ্রিলে চীনের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় বেশ কিছু জনপ্রিয় লাইভ স্ট্রিমিং সাইটের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে। এসব সাইটে অশ্লীল এবং সহিংস ভিডিও দেখানো হয় বলে অভিযোগ করা হয়েছিল। মন্ত্রণালয় মনে করছে এর ফলে সমাজের নৈতিক অবক্ষয় হচ্ছে।

তবে সরকারের এসব পদক্ষেপ সত্ত্বেও চীনে এ ধরনের সাইটগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়ছে। বিশেষ করে সেসব সাইটের, যেখানে ওয়েবক্যামের সামনে ১৮ বছরের কম বয়সী মেয়েরা নানা অঙ্গভঙ্গি করে পুরুষ দর্শকদের বিনোদন দেওয়ার চেষ্টা করে। নিউ এক্সপ্রেস একটি পরিসংখ্যান উল্লেখ করে বলেছে, লাইভ স্ট্রিমিংয়ের দর্শকদের মধ্যে ১৬ শতাংশই ১৮ বছরের নিচে। আর এই কন্টেন্টগুলো যারা তৈরি করছে তাদের ৬০ শতাংশের বয়স ২২ বছরের নিচে। যারা এই কন্টেন্টগুলো দেখছেন তাদের তিন চতুর্থাংশই পুরুষ।

তবে কলা খাওয়ার দৃশ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞার খবরে চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে। এক ব্যক্তি জানতে চেয়েছেন, ‘কীভাবে কলা খেলে সেটা যৌন সুড়সুড়ি আর কীভাবে খেলে নয়- সেটা কে ঠিক করবেন?’

আরেকজনের প্রশ্ন, ‘পুরুষরা কি তাদের কলা খাওয়ার দৃশ্য লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারবে? কেউ কেউ আবার বলেছেন, কলা খাওয়া নিষিদ্ধ হওয়ার পর এখন হয়তো তারা ভিন্ন পথ খুঁজবে। তারা এখন শসা খেতে শুরু করবে। এটা যদি ভালো না দেখায় তখন কী হবে?’