মেইন ম্যেনু

চুমু আর এক বিছানায় শোয়ার জন্য পুরুষ চাই : তসলিমা নাসরিন

চুমু খেতে চাইছেন প্রেমিকা! প্রেমিকের সঙ্গে শুতে চাইছেন প্রেমিকা! অথচ, ১০টি নয়, পাঁচটি নয়, সবেধন নীলমণির মতো একমাত্র প্রেমিকমণি-ই কি না ভালো করে বলতে পারেন না আই লাভ ইউ!!

প্রেমিক শুধুমাত্র নাম-কা-ওয়াস্তে!! থাকতে হয় বলেই আছেন প্রেমিক!!

শুধুমাত্র তাই-ই নয়৷ অন্যত্র ব্যস্ত থাকেন প্রেমিক! এবং, এমনই সব কারণের জন্য ওই প্রেমিকের সঙ্গে আর পোষাচ্ছে না প্রেমিকার! আর, তার জেরেই, এখন অন্য প্রেমিক খুঁজছেন ওই প্রেমিকা! অথচ, প্রেমিক চাই বলে যে বিজ্ঞাপন দেবেন ওই প্রেমিকা, তার-ও উপায় নেই! কেননা, পিছু ছাড়ছে না সংশয়৷ কারণ, প্রেমিক চাই বলে বিজ্ঞাপন দিলে যদি তাঁর স্বপ্নভঙ্গ হয়…!

স্বপ্নভঙ্গ হোক, স্বাভাবিক কারণে তেমন মোটেও চান না ওই প্রেমিকা৷ কেননা, তিনি তো প্রেমিক-ই চান৷ তার উপর, ওই প্রেমিককে যে বিয়ে করবেন, তেমনও চাইছেন না ওই প্রেমিকা! কারণ, তিনি চাইছেন ডেডিকেটেড একজন প্রেমিক৷ শুধুমাত্র ডেডিকেটেড৷ এবং, আই লাভ ইউ বলতে জানেন, এমন এক খুবসুরত প্রেমিক চাইছেন ওই প্রেমিকা৷ তা হলেই তাঁর চলবে৷

ডেডিকেটেড প্রেমিকের জন্য এমন কাতর আর্জি অন্য কারও নয়৷ ডেডিকেটেড প্রেমিকের জন্য প্রতীক্ষারত এক প্রেমিকার এমন আর্জি ‘লজ্জা-র শিল্পী’ তসলিমা নাসরিনের৷

এমন-ই প্রকাশ পেয়েছে লেখিকার ফেসবুক প্রোফাইলের মন্তব্যে: তিনি শুধুমাত্র প্রেম করতে চান৷ আর, তার জন্য যাতে কাউকে তিনি পেয়ে যান, সেই বিষয়ে তিনি আর্জি-ও রেখেছেন৷ তা হলে, একজন ডেডিকেটেড প্রেমিকের জন্য ‘লজ্জা-র শিল্পী’ কীভাবে, কার কাছে রাখলেন এমন আর্জি!!

ফেসবুকে এমন মন্তব্য করেছেন তসলিমা নাসরিন: ১০টি নয়, পাঁচটি নয়, একটিমাত্র প্রেমিক তাঁর৷ অথচ, তাঁর সবেধন প্রেমিকমণিটি ভালো করে আই লাভ ইউ-ও বলতে পারেন না৷

নাম-কা-ওয়াস্তে একটি প্রেমিক আছেন৷ থাকতে হয় বলেই আছেন৷ প্রেমিকের সঙ্গে কদাচিৎ দেখা হয় তাঁর৷ অথচ, তিনি চুমু-টুমু খেতে চান, শুতে চান৷ কিন্তু, প্রেমিক অন্যত্র ব্যস্ত৷

তাই, এ ভাবে তাঁর আর পোষাচ্ছে না৷ এ দিকে ‘প্রেমিক চাই’ বিজ্ঞাপনটাও তিনি দিতে পারছেন না৷ কেননা, ‘রাক্ষস-খোক্কস’ কী না কী জুটে যাবে, সেই বিষয়টি নিয়েও তাঁর সংশয় রয়েছে৷

ফেসবুকে ‘লজ্জা-র শিল্পী’র এমন মন্তব্য প্রকাশ পেয়েছে: সোমবার, সাত মার্চ সকালে তিনি যখন বিছানায় গড়াচ্ছেন, তখনই তিনি শোনেন ওই দিন শিবরাত্রি৷ তিনি ভাবেন, শিবলিঙ্গে দু’ লিটার দুধ ঢেলে এলে কেমন হয়! শিবলিঙ্গে দুধ বা জল ঢাললে নাকি ভালো পাত্র জোটে৷ তাঁর তো বিয়ের বাসনা নেই৷

Anannya-home(5)

একটা ডেডিকেটেড প্রেমিক পেলেই তাঁর চলবে৷ যেমন ভাবা, তেমন কাজ৷ তাঁর বাড়ির কাছেই রয়েছে এক মন্দির৷ তিনি দেখেন, সেখানে পুজো হচ্ছে, প্রচণ্ড ভিড়৷

সেখানে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে তিনি পুজো দেখেন৷ তার পর সোজা শিবলিঙ্গের কাছে চলে যান৷ তবে, দুধ পাননি৷ কিন্তু, তাঁর হাতের কাছে জল ছিল৷ সেই জল-ই তিনি ঢেলে আসেন৷ এবং, আই লাভ ইউ বলতে জানেন এমন একজন খুবসুরত প্রেমিককে তিনি চান৷

শুধুমাত্র তাই নয়৷ ফেসবুকে প্রকাশ পেয়েছে তসলিমা নাসরিনের এমনই মন্তব্য: ভগবানে তাঁর বিশ্বাস নেই, আল্লায় তো নেই-ই৷ অন্যদিকে, যে কয়েক হাজার ঈশ্বরের জন্ম হয়েছে যুগ যুগ ধরে, সে সবেও তাঁর বিশ্বাস নেই৷

তা হলে কেন তিনি ভাবছেন শিবলিঙ্গে জল ঢাললে ভগবান শিব তাঁকে একজন প্রেমিক জোগাড় করে দেবেন? ফেসবুকে তিনি এমন মন্তব্য করেছেন: ভগবান শিব হয়তো দেবেন না৷

কিন্তু, দিতে পারেন কি না, একটু বাজিয়ে দেখলে ক্ষতি কী! তিনি যদি প্রেম করার জন্য মনের মতো একটা পাত্র পেয়ে যান দু’-চারদিনের মধ্যে, তা হলে তাঁকে ভেবে-ই নিতে হবে শিব বলে কিছু না কিছু কোথাও ছিলেন বা আছেন৷ শুধু শিব নয়, আল্লার অস্তিত্বের প্রমাণ পেলে তো আল্লাকেও বিশ্বাস করতে শুরু করবেন তিনি৷