মেইন ম্যেনু

চুল নষ্ট হওয়ার ৫টি কারণ

রূপ বাড়াতে কেশসজ্জায় অনেক কিছুই করা হয়। তবে অনেক সময় সেসব হিতে বিপরীত হয়ে যায়।

ভারতীয় ত্বক বিশেষজ্ঞ এবং হেয়ার এক্সপার্ট সোনিয়া মঙ্গল চুলের ক্ষতি হওয়ার কিছু কারণ উল্লেখ করেন।

– সোজা চুল সবারই কাঙ্ক্ষিত। যাদের সোজা ঝলমলে চুল নেই তারাও এখন চাইলেই চুল সোজা করতে পারেন। তবে অনেকেই সরাসরি চুলে স্ট্রেইটনার ব্যবহার করে থাকেন। গরম স্ট্রেইটনার চুল সাময়িকভাবে সোজা ও সুন্দর করলেও ক্ষতিগ্রস্ত হয় চুলের স্বাস্থ্য। গরম স্ট্রেইটনার ব্যবহারের ফলে চুল রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যায়।

– চুল পরিপাটি রাখতে আঁচড়াতেই হয়। তাছাড়া মাথার ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধিতেও চুল ব্রাশ করা উপকারী। তবে অতিরিক্ত চুল আঁচড়ালে চুল পড়ার পরিমাণও বৃদ্ধি পায়। বিশেষ করে ভেজা চুল আঁচড়ালে, চুল দুর্বল ও ভঙ্গুর হয়ে যায়।

– বাইরের ধুলাবালি, দূষণ এবং আবহাওয়ার কারণে চুল নোংরা হওয়া বা চুলের গোড়ায় ময়লা জমা খুবই স্বাভাবিক। তাই চুলে শ্যাম্পু করা খুবই জরুরি। অনেকে প্রতিদিনই চুলে শ্যাম্পু করেন। তবে প্রতিদিন শ্যাম্পু করা খুবই ক্ষতিকর। এতে চুল শুষ্ক হয়ে যায় এবং দুর্বল হয়ে পড়ে।

– তাছাড়া চুল আঁচড়ানোর জন্য ভুল ব্রাশ বা চিরুনি বেছে নেওয়ার কারণেও চুল নষ্ট হয়। হালকা বা ফাঁকা দাঁত বা ব্রিসলসযুক্ত ব্রাশ বা চিরুনি বেছে নেওয়া উচিত। এতে চুল পড়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

– শুধু বাইরের অভ্যাসের কারণে নয়। চুল ক্ষতিগ্রস্ত হয় সঠিক খাদ্যাভ্যাসের অভাবে। চুলের স্বাস্থ্য ভিতর থেকে সুন্দর করতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন এ, সি এবং ই-যুক্ত খাবার খাওয়া জরুরি।