মেইন ম্যেনু

চেরি ফলের জুস উচ্চ রক্তচাপ কমায়

প্রতিনিয়ত শারীরিক এবং মানসিক বিভিন্ন চাপ নিয়ে আমাদের চলাফেরা করতে হয়। আর অতিরিক্ত চাপের কারণে সৃষ্ট হয় উচ্চ রক্তচাপ। যা এখন একটি সাধারণ সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। নতুন এক গবেষণায় বলা হয়েছে, চেরি ফলের জুস কার্যকরীভাবে উচ্চ রক্তচাপ কমায়।

বিশেষ করে পুরুষদের প্রাথমিক উচ্চ রক্তচাপের পরিমাণ কমায়, যা ওষুধ খাওয়ার মতোই কাজ করে। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে না থাকলে হার্ট অ্যাটাক, হার্ট ফেইলর, কিডনির জটিলতা, স্ট্রোক এবং স্মৃতিভ্রংশ হতে পারে।

গবেষকেরা প্রাথমিক উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা ১৩০/৯০ (এমএমএইচজি) আছে এমন ১৫ জনের ওপর গবেষণাটি পরিচালনা করেন। রক্তচাপ এই মাত্রায় থাকা মানে হৃদরোগের ঝুঁকি উচ্চ পরিমাণে থাকা। তাদের প্রত্যেককে বাণিজ্যকভাবে উৎপাদিত চেরি ঘনীভূত ৬০ মিলি জুস পান করতে দেয়া হয়। জুস পান করার আগে ও পরে তাদের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর প্রতি ঘণ্টায় তাদের রক্তচাপ মাপা হয়।

ফেনলিক অ্যাসিড, প্রটোকেটেচুস এবং ভ্যানিলিক সমৃদ্ধ চেরি জুস রক্তরসের শিখরে পৌঁছায়। এটি সিস্টোলিক রক্তচাপের সর্বাধিক উন্নতি সাধন করে। গবেষণায় বলা হয়, টকযুক্ত চেরি জুস পান করার তিন ঘণ্টার মধ্যে সাত মিলিমিটার পর্যন্ত রক্তচাপ কমে।

ব্রিটেনের নর্দামব্রিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক এবং গবেষণার প্রধান লেখক কারেন কায়েনি বলেন, উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধী ওষুধ খেয়ে রক্তচাপের মাত্রা যে পরিমাণ কমে টকযুক্ত চেরি ফলের জুস পান করে একই পরিমাণ কমে। হৃদরোগে মৃত্যুর প্রধান কারণ হচ্ছে রক্তচাপ। অপেক্ষাকৃত কম মাত্রার রক্তচাপের পরিবর্তন মৃত্যুহারেও প্রভাব ফেলতে পারে।