মেইন ম্যেনু

ছাত্রলীগ নেতার রগ কর্তন: ২ জামায়াত কর্মী আটক

কক্সবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল ইসলাম মোস্তফার পায়ের রগ ও ঠোঁট কেটে নেয়ার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জামায়াতে ইসলামীর ২ জন কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল সড়ক ও কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের চান্দের পাড়ায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল সড়ক এলাকার মৃত আব্দুর রবের ছেলে কামাল হোসেন (৪০) ও সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের চান্দের পাড়ার মোহাম্মদ ইদ্রিসের ছেলে মোহাম্মদ নজরুল (৩৫)।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি (তদন্ত) বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল সড়কে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে তুলে এনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা রাজিবুল ইসলাম মোস্তফার পায়ের রগ ও ঠোঁট কেটে দেয় ছাত্রশিবিরের ক্যাডাররা। এ ঘটনার পর থেকে জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান শুরু করে। শুক্রবার সকালে ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জামায়াত ইসলামীর ২ জন কর্মীকে আটক করে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ওসি (তদন্ত) বখতিয়ার জানান, আটক দু’জনই জামায়াত ইসলামীর সক্রিয় কর্মী। ঘটনায় কক্সবাজার সদর থানায় মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল সড়কের নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে কক্সবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল ইসলাম মোস্তফাকে তুলে জেলা জামায়াত ইসলামির অফিসে নিয়ে ডান পায়ের রগ এবং মুখের ডান পাশের ঠোঁট কেটে দেয়। গুরুতর আহত ছাত্রলীগ নেতাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাতেই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে জামায়াত ইসলামীর অফিস ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে।