মেইন ম্যেনু

ছাদ থেকে হঠাৎ দুটি হাতের ইশারা

গাজীপুরের টঙ্গীতে যে কারখানাটিতে আগুন লেগেছে সেটার ছাদ থেকে দুটি হাতের ইশারা দেখা গেছে। দুর্ঘটনার সাড়ে চার ঘণ্টা পর দুটি হাতের নাড়াচাড়া দেখতে পায় ফায়ার সার্ভিস এবং স্থানীয় জনতা।

তাম্পাকো ফয়েলস লিমিটেড নামে এই কারখানার দুটি ভবন। একটি তিনতলা এবং একটি পাঁচ তলা। পাঁচ তলা ভবনটির এক পাশে একটি পানির ট্যাংক আছে। সেখান থেকেই সকাল সাড়ে দশটার দিকে দুটি হাত নাড়ানোর অস্পষ্ট দৃশ্য দেখা যায়। ধোঁয়ার কারণে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। কিছুক্ষণ পর সেই হাতটিও আর দেখা যাচ্ছে না।

হাত নাড়ানোর দৃশ্য দেখার পর উৎসুক জনতা এই বিপত্তির মধ্যেও কিছুটা আশাবাদী হয়ে উঠে, তাদের ধারণা ছাদে হয়ত অনেকে বেঁচে আছে। তবে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারায় সেখানকার পরিস্থিতিও স্পষ্ট নয়।

এই হাত নাড়ানোর ‍দুশ্য দেখতে পাওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তাকে উদ্ধারের বিষয়ে কৌশল নির্ধারণ করছেন। তবে আগুন এখনও নিয়ন্ত্রণে না আসায় বা তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারায় এ বিষয়ে কিছু করতে পারছেন না তারা।

শনিবার ভোরে কারখানাটিতে আগুন লাগে। সে সময় কারখানাটি চালু ছিল। তবে তখন কতজন শ্রমিক ভেতরে কাজ করছিলেন সেটা স্পষ্ট নয়। তবে নিহত ও আহত মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ৪৮ জনের বিষয়ে নিশ্চিত তথ্য পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ১৯ জন মারা গেছেন। এই ১৬টি মরদেহ রাখা আছে টঙ্গী হাসপাতালে। আর আহত ৩৩ জনকে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এদের তিন জন মারা গেছেন।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা জানান, ওই কারখানাটিতে একেকটি শিফটে প্রায় সাড়ে তিনশ শ্রমিক কাজ করতো। তবে গত রাতের শিফটে কতজন কর্মরত ছিলেন সেটা নিশ্চিত নয়।