মেইন ম্যেনু

ছুটি পাওয়ার জন্যে বসের সাথে যা করলেন এই মহিলা

কর্মস্থলে বসের যৌনতার হাতছানি থেকে বাদ পড়েছেন এমন মহিলা পাওটা বেশ কঠিন! কোনও না কোনওভাবে হেনস্তার স্বীকার হতেই হয়েছে। এই দেশে এমন ঘটনা অনেক কম ঘটলেও বিদেশি এহেন অভিযোগ ভুরি-ভুরি পাওয়া যায়। আর তেমনই ছুটি পাওয়ার জন্যে রীতিমত বসের চাহিদা মেটানোর কথা শুনতে হল এক মহিলাকে।

ঘটনা হল, অফিসে ৬ দিনের কমিউনিটি সার্ভিসের কাজ নিয়ে এসেছিলেন ২১ বছরের মাকানা মিলহো। দেখতে বেশ সুন্দরী! একবারে দেখলে অনেকেই মিলহোর প্রেমে পড়তে বাধ্য। কিন্তু এমনতর প্রস্তাব হয়তো কেউ দেবে না। কিন্তু কি সেই প্রস্তাব?

কেনই বা দেওয়া হল তাঁকে? কাজ শেষে একটি দরকারে তাড়াতাড়ি বেরতে চেয়েছিলেন মিলহো। সেই মতো বসের কাছে সেই আবদারও রাখল সে। কিন্তু এমনতর যে প্রস্তাব আসবে তা বোধহয় কল্পনাতেও ভাবতে পারেনি। বসের উত্তর, ছুটি দিতে পারি! কিন্তু একটাই শর্ত… ‘সেক্স করো তাড়াতাড়ি ছুটি পাবে’! এমনকী, কথা না শুনলে তাঁকে আটকে রেখে আরও দীর্ঘক্ষণ কাজ করানোর হুমকিও দেওয়া হয়।

বসের নাম ভিলানুয়েভা, বয়স ৪৭ বছর। প্রথমদিকে এহেন প্রস্তাবে কিছুটা হকচকিয়ে যান মিলহো। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যে বুদ্ধি খাটান। বসের পুরো বক্তব্যটি গোপনে রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করে দেন। তা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। তবে, ছুটি মঞ্জুর করাতে অনিচ্ছা সত্ত্বেও ভিলানুয়েভার প্রস্তাব রাখতেই বাধ্য হন মাকানা।