মেইন ম্যেনু

ছেলে বাসর ঘরে, চাচা ও ভাই কারাগারে

ঠাকুরগাওয়ের রাণীশংকৈল বাঁশবাড়ি গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে সোহাগ হোসেন (২২) একই গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের মেয়ে শিরিন আক্তারের সঙ্গে প্রেমের টানে ঘরবাড়ি ছেড়ে পাড়ি জমিয়েছে গোপন ঠিকানায়। প্রেমিকা শিরিনকে নিয়ে বাসরঘরে মধুর সময় কাটাচ্ছে সোহেল।

অপরদিকে মেয়ের বাবা বাদি হয়ে রাণীশংকৈল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) আইন ২০০৩এর ৭/৩০ ধারায় অপহরণ ও সহায়তার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। অপহরণ কাজে সহযোগিতায় অপরাধী হিসেবে সোহেলের চাচা বাবুল হোসেন ও ছেলের ছোট ভাই সবুর আলী (১৯)কে আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন থানা পুলিশ। উল্লেখ্য, বাবুল হোসেন আসন্ন ইউপি নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী ও সবুর এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে শিরিন আক্তার জানায়, আমি স্ব-ইচ্ছায় এ্যাডভোকেট মোঃ শামীম হোসেনের মাধ্যমে প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট/নোটারী পাবলিক, ঢাকায় হাজির হয়ে ১৭ ফেব্রুয়ারী “ কোর্ট ম্যারেজ/বিবাহের হলফনামা’ ও একই তারিখে ঢাকা সিটি করপোরেশন(দঃ)’র ৫নং ওয়ার্ডের কাজী মোঃ ইয়াহইয়ার কাছে নিকাহ রেজিষ্ট্রার সম্পন্ন করি। আমার বাবার অভিযোগের কোন ভিত্তি নাই।

থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রেজাউল করিম বলেন, শিরিন আক্তারের বাবা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) আইন ২০০৩এর ৭/৩০ ধারামতে অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। আসামী গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত কাজ চলছে অভিযোগের সত্যতা না পেলে অভিযুক্তদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে।