মেইন ম্যেনু

ছোট্ট ক্ষুধা মেটান চিকেন কিমা প্যাটিসে

ফাস্ট ফুড হিসেবে প্যাটিস বেশ পরিচিত। তবে তৈরি করা বেশ ঝামেলা বলে অনেকেই বাড়িতে তা তৈরি করতে চান না। আজ দেখে নিন এমন একটি রেসিপি যাতে ঝামেলা একেবারেই কম। আর এই প্যাটিস তৈরিতে মুরগীর মাংসের কিমার পাশাপাশি ব্যবহার করা হয় সেদ্ধ আলু, ফলে প্যাটিস হয় নরম ও মুখরোচক। চলুন দেখে নিই একদম সহজ রেসিপিটি।

উপকরণ
– ২৫০ গ্রাম মুরগীর মাংসের কিমা
– ৩টি বড় আলু, সেদ্ধ করা
– লবণ স্বাদমতো
– ২ টেবিল চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার
– ভাজার জন্য তেল
– ১ টেবিল চামচ রসুন কুচি
– ১ টেবিল চামচ আদা-রসুন বাটা
– ১টি বড় পিঁয়াজ, মিহি কুচি করা
– ১ চা চামচ কাশ্মীরি মরিচের গুঁড়ো
– ১ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো
– ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো
– ১ চা চামচ চাট মশলা
– দেড় টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি
– পরিবেশনের জন্য চাটনি ও সস

প্রণালী
১) একটি বড় বাটিতে সেদ্ধ আলু চটকে নিন। এতে লবণ এবং কর্ন ফ্লাওয়ার দিয়ে মাখিয়ে নিন।
২) ১ টেবিল চামচ তেল গরম করে নিন একটি নন-স্টিক প্যানে। এতে রসুন কুচি দিয়ে সোনালি করে ভেজে নিন। আদা-রসুন বাটা দিয়ে ভালো করে সাঁতলে নিন ১ মিনিট।
৩) পিঁয়াজ কুচি দিয়ে ১ মিনিট সাঁতলে নিন। কিমা দিয়ে দিন। বেশি আঁচে ভাজুন ১-২ মিনিট।
৪) আঁচ কমিয়ে দিন। লবণ, মরিচ, গরম মশলা এবং ধনে দিয়ে ভালো করে মেশান। ওপরে অল্প করে পানি দিয়ে কম আঁচে রান্না করে নিন ৫ মিনিট বা কিমা সেদ্ধ হয়ে আসা পর্যন্ত।
৫) কিমা রান্না হয়ে এলে চাট মশলা এবং ধনেপাতা কুচি দিন। মিশিয়ে ঠাণ্ডা হতে রাখুন একটি বাটিতে।
৬) হাতে অল্প করে তেল মেখে নিন। সমান ভাগে ভাগ করে নিন আলুর মিশ্রণ এবং কিমার মিশ্রণ।
৭) একভাগ আলুর মিশ্রণ নিন। এর মাঝে গর্ত করে একভাগ কিমার মিশ্রণ দিন। আলু দিয়ে ঢেকে প্যাটিসের আকৃতি দিন। এভাবে কয়েকটি প্যাটিস তৈরি করে নিন। প্যাটিসে অল্প করে কর্ন ফ্লাওয়ার ছিটিয়ে নিন।
৮) নন স্টিক তাওয়াতে অল্প করে তেল গরম করে নিন। মাঝারি আঁচে প্যাটিস ভেজে নিন। কিচেন পেপারে তেল ঝরিয়ে নিন।