মেইন ম্যেনু

ছয় খুনের দায় স্বীকার জেএমবির তারিকুলের

রাজধানীর গোপীবাগে ছয় খুনের দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য তারিকুল ইসলাম ।

শুক্রবার ঢাকার মহানগর হাকিম মাহবুবুর রহমান আসামি তারিকুলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। জেএমবি সদস্যরাই এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে আদালতকে জানিয়েছে তারিকুল।

জবানবন্দি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছেন ছয় খুনের মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পরিদর্শক কাজী গোলাম কবীর।

এর আগে বিকেলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তারিকুলকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ২১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় মতিঝিলের নিকটবর্তী গোপীবাগের একটি বাড়িতে ইমাম মেহেদির প্রধান সেনাপতি বলে দাবি করা লুৎফর রহমানসহ ছয়জনকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় লুৎফর রহমানের ছোট ছেলে আবদুল্লাহ আল ফারুক ওয়ারী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

জবানবন্দিতে তারিকুল উল্লেখ করেছে, লুৎফর রহমানসহ ছয়জনকে হত্যায় সরাসরি অংশ নেয় সেসহ মোট ছয়জন। এ বিষয়ে জেএমবির শীর্ষস্থানীয় নেতারা পরিকল্পনা করে। ওই পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা ছয়জনকে গলা কেটে হত্যা করে।

ছয় খুনের মামলায় জেএমবির সেকেন্ড ইন কমান্ড গোলাম সারওয়ার রাহাত ও আজমীর অমিতকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তারা জামিনে রয়েছেন।

এর আগে গত ২৫ অক্টোবর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে তারিকুল নিজ হাতে পিডিবির প্রাক্তন চেয়ারম্যান খিজির খানকে গলা কেটে হত্যার কথা স্বীকার করে। গত ৫ অক্টোবর রাজধানীর বাড্ডায় কথিত পির খিজির খানকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার হয় তারিকুল। পুলিশ ১৪ অক্টোবর টাঙ্গাইল থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

জেএমবি সদস্য তারিকুল ইসলাম এর আগে ২০০৫ সালে সারা দেশে একযোগে বোমা হামলার ঘটনায় চট্টগ্রামে গ্রেফতার হয়েছিল। এরপর দুবছর আগে জামিনে ছাড়া পায় সে।



« (পূর্বের সংবাদ)