মেইন ম্যেনু

‘জঙ্গি’ মুরাদের লাশ ঢামেকে

রাজধানীর মিরপুরের রূপনগরের শিয়ালবাড়ী এলাকায় পুলিশের অভিযানে নিহত ‘জঙ্গি’ জাহাঙ্গীর ওরফে মেজর মুরাদের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ২টা ৪০ মিনিটে পুলিশের একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে মুরাদের লাশ ঢামেকে আনা হয়।

পল্লবী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মো. জাকির হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মুরাদের লাশ ঢামেকে নিয়ে যাওয়া হয়।

‘জঙ্গি আস্তানা’ অভিযানের বিষয়ে আজ শনিবার বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান জাকির হোসেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপকমিশনার মো. ইউসুফ আলী জানান, মেজর মুরাদ জেএমবির অন্যতম প্রধান প্রশিক্ষক ছিলেন। এ ছাড়া গুলশান ও শোলাকিয়া হামলাকারীদেরও প্রশিক্ষক ছিলেন তিনি।

মো. ইউসুফ আলী আরো জানান, অভিযানে পুলিশের তিন কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। তাঁরা হলেন রূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ শহীদ আলম, পরিদর্শক (তদন্ত) শাহীন ফকির ও উপপরিদর্শক (এসআই) মমিনুল ইসলাম। চিকিৎসার জন্য তাঁদের প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট সূত্রে জানা যায়, ৩৩ নম্বর হাউজিংয়ের ৩৪ নম্বর বাড়ির ষষ্ঠ তলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে রাত ৯টার দিকে পুলিশ অভিযানে যায়। ওই সময় বাসায় অবস্থানরত ‘জঙ্গিরা’ পুলিশের ওপর হামলা চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে এক ‘জঙ্গি’ নিহত হয়।