মেইন ম্যেনু

জনপ্রিয় বলিউড ২৩ তারকার ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব

বন্ধুত্ব এমন একটি সম্পর্ক যার কোনো সীমা পরিসীমা নেই। এই সম্পর্কে মধ্যে নেই কোনো চাওয়া পাওয়ার হিসাব। বন্ধু চিরদিনই বন্ধু। সুখে কি দুঃখে বন্ধুর মতো বন্ধু থাকে আজীবন। তারকাদের মধ্যেও রয়েছে এমন বন্ধুত্বের অনন্য নমুনা। তারকা বহুল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলিউডেও রয়েছে নিখাদ বন্ধুত্বের উদাহরণ। বিশাল এই ইন্ডাস্ট্রির আলোচিত কিছু বন্ধুদের নিয়ে এই প্রতিবেদন। জেনে নিন বলিউডের দারুণ কিছু বন্ধু তারকাদের নাম।

ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন এবং প্রীতি জিনতা :

সম্প্রতি ‘নাচ বালিয়ে সিজন সেভেনে’ ঐশ্বরিয়ার প্রশংসা করেন প্রীতি জিনতা। তিনি অ্যাশকে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি এবং শর্মিলা ঠাকুরের সঙ্গে তুলনা করেছেন। কারণ তাদের মতো তিনিও বিয়ে এবং সন্তান হওয়ার পরেও অভিনয় করছেন।

অভিষেক এবং ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক প্রীতির। তার মতে, অ্যাশ একজন আদর্শ মা এবং বন্ধু হিসেবেও তিনি চমৎকার একজন।

সোনম কাপুর-জ্যাকুলিন ফার্নান্দেস :

বলিউডের দুই ফ্যাশন ডিভা সোনম কাপুর এবং জ্যাকুলিন ফার্নান্দেস। একে অপরের ভালো বন্ধু এ তারকা দ্বয়। বিভিন্ন অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান এবং পার্টিতে একসঙ্গেই দেখা মেলে এ দুজনের। ভালো বন্ধুত্বের দৃষ্টান্ত হিসেবে পরিচিত এ জুটি। মাঝে মাঝে নিজেরা মিলেও বিভিন্ন পার্টির আয়োজন করেন সোনম-জ্যাকুলিন।

শাহরুখ-কাজল-করণ জোহর :

এই ত্রয়ী মিলে বক্স অফিসে বেশ কয়েকটি ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন। শুধু সিনেমার পর্দায় নয় বাস্তবেও তারা ভালো বন্ধু। কাজলকে নিজের সিনেমার লাকি চার্ম মনে করেন করণ জোহর। সেই কারণে ক্যামিও চরিত্র হলেও কাজলকে দেখা যায় করণের সিনেমায়। কাজলের সঙ্গে শাহরুখের বন্ধুত্বটাও বেশ পুরনো। রোহিত শেঠির দিলওয়ালে সিনেমার মাধ্যমে সম্প্রতি আবারো রোমান্স করতে দেখা যাবে শাহরুখ-কাজল জুটিকে।

রণবীর সিং এবং অর্জুন কাপুর :

গুনডে সিনেমার এ দুই অভিনেতাকে মনে করা হয় একুশ শতকের সিনেমার জয়-ভীরু। ক্যামেরা এবং ক্যামেরার বাইরে তাদের বন্ধুত্ব সকলের নজর কেড়েছে। এ জন্য সকলের প্রশংসাও পান তারা। ‘এআইবি নকআউটে’ রোস্ট অথবা ‘আইফা ২০১৫’-তে হোস্ট দুটোতেই সমান প্রশংসিত এ জুটি।

করণ জোহর এবং কারিনা কাপুর :

ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে করণ জোহরের কাল হো না হো সিনেমার মতো ব্লকবাস্টার সিনেমার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন কারিনা কাপুর। পরবর্তীতে যখন তাকে কাভি খুশি কাভি গম সিনেমার প্রস্তাব দেন তখন সেটি লুফে নেন বেবো। তারপর থেকেই খুব ভালো বন্ধু এ দুজন। কারিনার মতে, করণ তার উপদেষ্টা এবং পথপ্রদর্শক।

রণবীর কাপুর-আদিত্য রয় কাপুর

আদিত্য রয় কাপুর তার সেরা বন্ধু হিসেবে রণবীর কাপুরকে চিনেছিলেন, যখন আদিত্যের বড় ভাই বলিউডের খ্যাতনামা প্রযোজক সিদ্বার্থ রয় কাপুরের সঙ্গে পারিবারিক অশান্তির কারণে আদিত্য একা হয়ে পড়েন। সেময় বেশিরভাগ সময়ই আশিকি ২ খ্যাত নায়ক আদিত্যকে দেখা গেছে বান্দ্রায় রণবীর কাপুরের বাসভবনে। আজও একে অপরের খুবই ভালো বন্ধু তারা।

ফারাহ খান-শাহরুখ খান

অভিনেতা শাহরুখ খান এবং কোরিওগ্রাফার ও পরিচালক ফারাহ খানের বন্ধুত্ব বলিউডে অনেকের কাছেই অনুপ্রেরণার। তবে এক পার্টিতে ঘটে যাওযঅ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে শাহরুখ, ফারাহ খানের স্বামীকে থাপ্পর মারেন। এতে শাহরুখ-ফারাহর বন্ধুত্বে সংশয়ে দেখা দেয়। কিন্তু সব নিন্দুকের মুখে চুরকালি মাখিয়ে পরবর্তীতে বন্ধুত্বের টানে শাহরুখ ক্ষমাপ্রার্থী হলে, আবারো বন্ধুত্ব জোড়া লাগে তাদের। ফারাহ খান তার পরিচালিত বেশিরভাগ সিনেমাই শাহরুখকে নিয়ে নির্মাণ করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে ম্যায় ‍হু না, ওম শান্তি ওম এবং সাম্প্রতি হ্যাপি নিউ ইয়ার। তিনটি ছবিই বলিউডে সেরা সফল সিনেমার তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে।

সালমান খান-সঞ্জয় দত্ত-অজয় দেবগন

সালমান খান, অজয় দেবগন ও সঞ্জয় দত্তের বন্ধুত্বের কথা অনেকেই জানেন না। কেননা এই তিনজন তাদের বন্ধুত্বের কথা সকলের সামনে তেমনভাবে প্রকাশ করেন না। তবে একে অপরের সঙ্গ খুবই উপভোগ করেন তারা। এমনকি একে অপরের সঙ্গে কাজের সুযোগ কখনোই হাত ছাড়া করতে চান না। এই তিন বন্ধুকে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল সন অব সর্দার সিনেমায়।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া-দীপিকা পাড়ুকোন

বলিউডের এই শীর্ষ দুই অভিনেত্রী একে অপরের খুবই ভালো বন্ধু। যে কোনো অনুষ্ঠানে প্রিয়াঙ্কা-দীপিকা একত্রিত হলেই তাদেরকে সময়টা খুবই আনন্দে কাটাতে দেখা যায় এবং খুবই মজা করেন তারা। এমনকি ব্যক্তিগত বিভিন্ন পার্টিতে উপস্থিত থাকেন এই দুই অভিনেত্রী। রাম-লীলা সিনেমায় একটি আইটেম গানে প্রিয়াঙ্কাকে পারফর্ম করতে দেখা গিয়েছিল। সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে ছিলেন দীপিকা। বন্ধুত্বের গাঢ় বন্ধনে আবদ্ধ দুই অভিনেত্রী সাম্প্রতি একত্রে সঞ্জয় লীলা বানশালীর বাজিরাও মাস্তানি সিনেমায় অভিনয় করছেন।

কারিনা কাপুর খান-অমৃতা আরোরা

বলিউডে অনেক অভিনেত্রীর সঙ্গে যেখানে প্রায়ই কারিনা কাপুরের সম্পর্কের অবনতির খবর শোনা যায় সেখানে অমৃতা আরোরার সঙ্গে তার বন্ধুত্বের শুরু থেকেই আজও অটুট। এই দুই অভিনেত্রীকে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল গোলমাল রিটার্নস সিনেমায়। শত ব্যস্ততার মধ্যেও একে অপরের পারিবারিক অনুষ্ঠান কখনোই মিস করেন না কারিনা ও অমৃতা।