মেইন ম্যেনু

জনসমক্ষে স্ত্রীকে নগ্ন হাঁটিয়ে শাস্তি! (ভিডিও)

স্বামীর অনুপস্থিতিতে আরো সাতজন পুরুষের সঙ্গে মোবাইল ফোনে ‘রসালো বার্তা’ আদান-প্রদান করেছেন স্ত্রী। আর এই ‘অপরাধে’ স্ত্রীকে জনসমক্ষে নগ্ন হাঁটিয়ে শাস্তি দিচ্ছে স্বামী।

ঘটনাটি নিউইয়র্কের ব্যস্ত রাস্তায়। স্বামী শুধু হাঁটিয়ে ক্ষান্ত হননি,তিনি ভিডিও করেছেন। আর সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেটে।

ভিডিওতে দেখা যায়, শুধু এক জোড়া কালো বুট পরে ভীষণ সংকোচে হেঁটে চলেছেন এক নারী। পুরো শরীরে আর কোনো কাপড় নেই তাঁর। আর তাঁর এই হেঁটে যাওয়ার দৃশ্যের ভিডিও ধারণ করছেন একজন পুরুষ।

ভিডিওটিতে ওই পুরুষের কথা শোনা যাচ্ছে। বারবার সংকোচে গুটিয়ে নিজেকে লুকিয়ে ফেলতে চাইছেন ওই নারী। কিন্তু পুরুষকণ্ঠের নির্দেশে তাঁকে হাঁটতে হচ্ছে। কখনো এক হাত বুকের ওপর রেখে, অন্য হাতে যৌনাঙ্গ ঢেকে নিজেকে আড়াল করার ব্যর্থ চেষ্টা করছেন ওই নারী। কিন্তু তা সম্ভব হয়ে উঠছে না।

ওই নারীর হেঁটে যাওয়ার দৃশ্য ভিডিও ধারণ করা ব্যক্তিটি তাঁর স্বামী। কিন্তু স্বামী হয়ে কেন তিনি স্ত্রীকে জনসমক্ষে নগ্ন হয়ে হাঁটতে বাধ্য করছেন?

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্বামীর অভিযোগ, তাঁর অনুপস্থিতিতে আরো সাতজন পুরুষের সঙ্গে মোবাইল ফোনে ‘রসালো বার্তা’ আদান-প্রদান করেছেন স্ত্রী। আর এই ‘অপরাধে’ স্ত্রীকে এভাবে শাস্তি দিচ্ছেন তিনি।

ভিডিওচিত্রে দেখা যায়, প্রথমে একটি তোয়ালে জড়িয়ে নিয়েছিলেন ওই স্ত্রী। কিন্তু ধমক দিয়ে সেই তোয়ালে খুলে ফেলতে স্ত্রীকে বাধ্য করেন ওই স্বামী। স্ত্রীকে তিনি বলছিলেন, ‘সবাইকে দেখাও তুমি কেমন, দেখাও তুমি কত সুন্দর।’

ভিডিওতে স্প্যানিশ ভাষায় স্বামীর কথা শোনা যায়, ‘হাঁটো, হাঁটতে থাকো। ক্যামেরাকে হাই বলো। বলো সবাইকে যে তুমি এটা কেন করছ?’

স্বামী বলেন, ‘তোমার কর্মের ফল ভোগ করো। তুমি সুন্দর ছিলে, তাই তোমার সঙ্গে সংসার শুরু করেছিলাম আমি। কিন্তু এরই মধ্যে তুমি আরো সাতজন পুরুষের সঙ্গে কথা বলতে শুরু করেছ।’

এ সময় নারীটি আত্মপক্ষ সমর্থন করতে চেষ্টা করেন। তিনি বলতে শুরু করেন, ওই ব্যক্তিদের সঙ্গে কোনো যৌন সম্পর্ক স্থাপন করা তাঁর উদ্দেশ্য ছিল না।

কথাটি যেন আগুনে ঘি ঢালে। ক্রোধে উন্মত্ত স্বামীটি চিৎকার করে বলে ওঠেন, ‘বাহ, যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে চাওনি। কিন্তু ওদের সঙ্গে চুমু দেওয়া, ভালোবাসি বলা আর ছবি পাঠানোর ব্যপারে কী বলবে?’

এ সময় স্ত্রীকে গালাগালি করেন ওই ব্যক্তি। জোর করে স্ত্রীর জড়িয়ে রাখা তোয়ালে টেনে খুলে ফেলে দেন তিনি।

ওই নারীকে বারবার রাস্তার পাশে পার্ক করে রাখা বিভিন্ন গাড়ির পেছনে লুকানোর চেষ্টা করতে দেখা যায়। এ সময় একটি মোটরসাইকেল ঢেকে রাখার কাপড় দিয়ে নিজের লজ্জা নিবারণের চেষ্টাও করেন তিনি।

বারবার তাঁর তোয়ালেটি ফেরত দিতে স্বামীকে অনুরোধ করছিলেন ওই নারী। কিন্তু স্বামীটি চিৎকার করে বলতে থাকেন, ‘তুমি কী ভেবেছ? সাতটি পুরুষকে তোমার নগ্ন ছবি পাঠানোর পরও আমি তোমার সঙ্গে থাকব। এটাই তোমার শাস্তি।’

ভিডিও