মেইন ম্যেনু

জন ট্রাভোল্টার বাড়িতে ব্যক্তিগত এয়ারপোর্ট

হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা জন ট্রাভোল্টা। পুরো নাম জন জোসেফ ট্রাভোল্টা। মঞ্চ দিয়ে তাঁর অভিনয়ের শুরু, সফলতা পান হলিউডের রুপালি জগতে। সফলতার সঙ্গে জড়িয়ে আছে আর্থিক সচ্ছলতা। জন ট্রাভোল্টা একজন ধনী অভিনেতা। আর টাকা থাকলে মানুষ চায় নিজের সব শখ পূরণ করতে।

অভিনয়ের পাশাপাশি ট্রাভোল্টা একজন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত পাইলট। তাঁর নিজেরই রয়েছে পাঁচটি বিমান। এসব বিমানের মধ্যে রয়েছে একটি এক্স-কান্তাস বোয়িং ৭০৭-১৩৮ এয়ারলাইনার। নিজের মৃত ছেলের স্মরণে তিনি এই বিমানের নাম রেখেছেন ‘জেট ক্লিপার এলা’। আর নিজের এসব বিমান রাখার জন্য ফ্লোরিডাতে নিজের বাড়ির সঙ্গে একটি ব্যক্তিগত এয়ারপোর্ট বানিয়ে নিয়েছেন তিনি। এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে লাইফস্টাইল এবং ইন্টেরিয়র-বিষয়ক অনলাইন পত্রিকা আই ডিজাইনার ডটকম।

ফ্লোরিডার ওকালার জুমবোলায়ারে ট্রাভোল্টার এয়ারপোর্টের নাম গ্রেস্টোন এয়ারপোর্ট। এতে রয়েছে নিজস্ব রানওয়ে।

তাঁর বাড়ি ও এয়ারপোর্টের মূল্য এক কোটি ২৫ লাখ মার্কিন ডলার।

ট্রাভোল্টার এই বাড়ি ও বিমানবন্দরের নকশা করেছে মডার্ন আর্কিটেকচার নামে একটি প্রতিষ্ঠান। আর এটি নির্মাণ করেছে কংক্রিট স্ট্রাকচার নামে একটি প্রতিষ্ঠান। ট্রাভোল্টার এই বাড়িতে আছে ১৬টি গাড়ির গ্যারেজ এবং বিমান রাখার হ্যাঙ্গার।

১৯৫৪ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন জন ট্রাভোল্টা। তাঁর জনপ্রিয় চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘পাল্প ফিকশন’ (১৯৯৪), ‘ফেস অফ’ (১৯৯৭), ‘হেয়ার স্প্রে’ (২০০৭), ‘ফ্রম প্যারিস উইথ লাভ’ (২০১০), ‘সোর্ড ফিশ’ (২০০১), ‘মাইকেল’ (১৯৯৬) প্রভৃতি।

এর মধ্যে ‘পাল্প ফিকশন’ ও ‘স্যাটার্ডে নাইট ফিভার’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য অস্কারে সেরা অভিনেতার মনোনয়ন পেয়েছিলেন তিনি।