মেইন ম্যেনু

জবির মসজিদের টয়লেট থেকে নারী শিক্ষার্থী উদ্ধার!

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পুরুষ টয়লেট থেকে একজন নারী শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা যায়।

ঘটনার সময় উপস্থিত থাকা একাধিক প্রত্যক্ষ দর্শীরা জানান, গতকাল আনুমানিক রাত ১০:৩০ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পুরুষ টয়লেট থেকে একজন নারী শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করা হয়। একজন অজ্ঞাত ব্যক্তি রাতের দিকে মসজিদের টয়লেটে গিয়ে সন্দেহ করেন যে টয়লেটের ভিতর কেউ একজন আছেন।

এর উপর ভিত্তি করে তিনি দরজায় ধাক্কা দিলে দেখেন যে একজন মেয়ে সেখানে অবস্থান করছেন। এর পর তিনি কয়েকজনকে সাথে নিয়ে মেয়েটিকে আটক করেন। এরপর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আটক হওয়ার বিষয়টি অবগত করেন জবি মসজিদ কমিটির সভাপতি এবং ট্রেজারার অধ্যাপক সেলিম ভূঁইয়া ঘটনাস্থলে আসেন এবং মেয়েটিকে নিজ দায়িত্বে নেন।

জবি কেন্দ্রীয় মসজিদের দায়িত্বরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা বলেন, ভাগ্যিস কোন দূর্ঘটনা ঘটেনি। তা নাহলে আমরাও কোন অনাকাঙ্খিত ঘটানায় জড়িয়ে যেতে পারতাম।তখন আমাদের উপর এর দায়ভার এসে পরতে পারতো।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ট্রেজারার ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার আগেই আমরা তাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হই। সে ইংরেজী বিভাগের শিক্ষার্থী ছিল ।

তবে ঐ শিক্ষার্থী বিশেষ কোন উদ্দেশ্য ছিল কিনা বা মানুষিক ভাবে অসুস্থ ছিল কিনা সে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তেমন কোন উদ্দেশ্যও ছিল না এবং সে স্বাভাবিক ছিল। এটা খুব বড় কিছু না। এটা একটা সাভাবিক ঘটনা ছিল।