মেইন ম্যেনু

জবি শিক্ষার্থীদের মিছিলে পুলিশের লাঠিপেটা

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দিকে যাওয়ার সময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের মিছিলে লাঠিপেটা করেছে পুলিশ। এতে অন্তত ৫০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

সোমবার সকাল ১০টার দিকে পুরান ঢাকার রায়সাহেব বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ বেলা ১২টার দিকে তাঁতীবাজার এলাকায় চৌরাস্তার মোড়ে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী অবস্থান নিয়েছেন। তাঁরা সেখানে টায়ার জ্বালিয়ে হলের দাবিতে স্লোগান দিচ্ছেন।

শিক্ষার্থীরা জানান, নাজিমউদ্দিন সড়কে পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারের জায়গায় চার নেতার নামে চারটি হল নির্মাণের দাবিতে মিছিল নিয়ে যাচ্ছিলেন শিক্ষার্থীরা। পুলিশ ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে বলেও জানান তাঁরা।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফন্ট জবি শাখার সভাপতি মুজাহিদ অনিকন জানান, পুলিশের লাঠিপেটা, টিয়ার শেল ও রাবার বুলেটে অন্তত ৫০ জন শিক্ষার্থী আহত হন। তাঁদের পুরান ঢাকার সুমনা হাসপাতাল, ন্যাশনাল হাসপাতাল ও সলিমুল্লাহ (মিটফোর্ড) মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে।

কোতোয়ালি থানার সহকারী কমিশনার (এসি) শাহেনশাহ মাসুদ বলেন, ‘আমরা বাধ্য হয়ে টিয়ার শেল নিক্ষেপ করি। আমরা যথেষ্ট সহনশীল ছিলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে বের হলে আমরা রায়সাহেব বাজার এলাকায় বাধা দেই এবং তাদের ফিরে যেতে বলি। কিন্তু শিক্ষার্থীরা পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে সামনে অগ্রসর হলে নয়াবাজার এলাকায় পুলিশ তাদের আবার বাধা দেয়। পরে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ রাবার বুলেট ছোড়ে ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।’

এদিকে, পুলিশের বাধার মুখে পড়ে মিছিলটি নয়াবাজার এলাকায় টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে নয়াবাজার, যাত্রাবাড়ী, গুলিস্তান, সদরঘাট ও মাওয়া যাওয়ার রাস্তায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।