মেইন ম্যেনু

জলবায়ু বিজ্ঞানীদের কাজ শেষ, এবার বরখাস্ত

বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে গত এক দশক ধরেই চলছে সমালোচনা। বিজ্ঞানীরা বেশ জোরেশোরেই লেগেছিলেন এই পরিবর্তনের প্রমাণ খুঁজে বের করে মানুষের সামনে হাজির করার জন্য। যেহেতু এটা সারা বিশ্বে হইচই ফেলে দিয়েছিল, কাজেই অস্ট্রেলিয়ার কর্তৃপক্ষ এখন মনে করছে জলবায়ু বিজ্ঞানীদের এখন আর কোনো প্রয়োজন নেই। এ ব্যাপারে যা জানার তা তারা ইতিমধ্যেই জেনে গেছেন। এবার এই সব বিজ্ঞানীদের চাকরিচ্যুত করে দিলেও কোনো সমস্যা নেই।

অস্ট্রেলিয়ার জলবায়ু পরিবর্তন গবেষণা দলের কয়েকশো বিজ্ঞানীর চাকরি চলে যাচ্ছে কারণ কর্তৃপক্ষ মনে করছে বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি সম্বন্ধে তারা প্রয়োজনীয় সব কিছুই ইতিমধ্যে প্রমাণ করে ফেলেছেন।

কিন্তু বিজ্ঞানীরা এখন উদ্বেগ প্রকাশ করছেন এই গণ বরখাস্তের সিদ্ধান্তে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলাফল মোকাবেলা করা অস্ট্রেলিয়ার জন্য ভয়ানক কঠিন হয়ে পড়বে। অস্ট্রেলিয়ার উপরে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব প্রকট। ইতিমধ্যেই বিশ্বের সবচেয়ে শুষ্ক দেশ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

জলবায়ু বিজ্ঞানী জন চার্চ বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার কমনওয়েলথ সায়েন্টিফিক এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ (সিএসআইআরও) বারবার বলছে যে জলবায়ু বিজ্ঞানের কাজ শেষ, এখন শুরু সেটাকে গ্রহণ এবং নিরসন প্রক্রিয়া। কিন্তু আমার মনে হয় তাদের এই বক্তব্যের ভিতরে ভ্রান্তি রয়েছে- জলবায়ু বিজ্ঞান মোটেই শেষ হয়ে যায়নি।’ সিএসআইআরও মূলত জলবায়ু বিজ্ঞানীদের এই চাকরি চ্যুতির পেছনে রয়েছে।