মেইন ম্যেনু

জলে ভাসছে ঢাকা : অফিসগামীদের চরম ভোগান্তি

মৌসুমি বায়ুর কারণে দ্বিতীয় দিনের মতো ভারি বর্ষণে ফের জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে রাজধানীতে। যে কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে অফিসগামীদের। সকাল ৬টার পর ৯টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টায় রাজধানীতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল ২৬ মিলিমিটার। আগামি কয়েকদিন এ বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সকাল থেকে প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণ রাজধানীতে ব্যাপক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়া, আসাদগেট, মতিঝিল, রামপুরা, ‍শান্তিনগর, বাড্ডা, বারিধারাসহ বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধায় দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ। কোথাও কোথাও হাঁটু পর্যন্ত জমেছে পানি।

ভারী বৃষ্টির কারণে বিজয় সরণি, মানিক মিয়া এভিনিউ, নয়া পল্টন, মালিবাগ, মৌচাক, মগবাজার, রামপুরা, মিরপুর, পুরান ঢাকার কিছু এলাকা ও প্রধান প্রধান সড়কগুলো পানিতে ডুবে গেছে। এসব রাস্তায় তৈরি হয়েচে প্রচন্ড যানজট। স্কুল, কলেজ ও অফিসগামী লোকজনকে পড়তে হয় তীব্র ভোগান্তিতে।

ঢাকার প্রধান সড়কগুলোর মধ্যে বিমানবন্দর সড়কের বনানী অংশে যানজট ছিল বেশি। এই সড়কের বেশিরভাগ অংশই পানিতে তলিয়ে যায়। এ ছাড়া ফার্মগেট থেকে শাহবাগ পর্যন্ত সড়ক এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনের সড়কের বিভিন্ন অংশও পানিতে ডুবে যায়।

ধানমন্ডি, জিগাতলার বিভিন্ন রাস্তা হাঁটু পানি পর্যন্ত তলিয়ে যায়। ভাঙাচোরা এবং মেরামতের জন্য খুঁড়ে রাখা অনেক রাস্তায় ভ্যান, রিকশা উল্টে পড়ার মত ঘটনাও ঘটেছে।

ভারী বৃষ্টিপাতে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা পুরান ঢাকার সরু গলিগুলোর। ভুক্ত ভোগীরা জানালেন, অল্প বৃষ্টিতে নিয়মিতই ডুবে যায় এখানকার রাস্তা ঘাট। ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কার না হওয়ায় প্রতিবছর বর্ষাকালে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়ছেন তারা।