মেইন ম্যেনু

জাজের হাত ধরে বলিউডে ফারিয়া!

ঢালিউড চলচ্চিত্রে এ সময়ের সবচেয়ে গোছানো প্রোডাকশন হাউস জাজ মাল্টিমিডিয়া। প্রযোজনা ও পরিবেশনার পাশাপাশি প্রজেকশন সিস্টেম সাপোর্টের মাধ্যমে সিনেমা চেইনে নিয়েছে নিয়ন্ত্রণ। এখন বড় বাজেট, বড় উৎসব মানে জাজের সিনেমা। ঝুঁকি কমাতে কলকাতার সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগও করছে। পুরো বিষয়টি কতটা ইতিবাচক তা নিয়ে বিতর্ক আছে।

সাম্প্রতিক সময়ে ইন্ডাস্ট্রিতে আরেকটি ঘটনা ঘটিয়েছে হাউসটি। তা হলো নায়িকা কেন্দ্রিক লগ্নি। মাহিয়া মাহির সঙ্গে বাপ্পী চৌধুরীর অভিষেক হলেও শেষ পর্যন্ত নায়িকাকে গুরুত্ব দিয়েছে জাজ। পর পর একডজন সিনেমায় মাহিকে নায়িকা করে জাজ।

সম্প্রতি সম্পর্কের অবনতি সূত্রে হাউসটি নতুন দুই নায়িকা। তাদের একজন নুসরাত ফারিয়া। এখন সবাই জানেন ‘আশিকী’ নায়িকা বলিউডে অভিনয় করতে যাচ্ছেন।

কলকাতা টাইমসে ৯ সেপ্টেম্বর এ সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রথম দুইদিন আড়ালে ছিল জাজ মাল্টিমিডিয়া। মনে হচ্ছিল ফারিয়ার বলিউড যাত্রায় জাজের কোনো ভূমিকা নেই। কিন্তু পরে জানা গেল ‘গাওয়াহ্‌ : দ্য উইটনেস’ নামের সিনেমাটির সঙ্গে জাজের সম্পৃক্ততা আছে। তবে তা এখনো পুরোপুর পরিষ্কার নয়।

ফারিয়া বলেছেন, ‌‘বলিউডের ছবিতে অভিনয়; পারিশ্রমিক— এ সবকিছুরই ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া।’

এ দিকে জাজের কর্ণধার আব্দুল আজিজ বলেন, ‘অরবিন্দ ক্রিয়েশন হাউসের কাস্টিং ডিরেক্টর যোসেফ অপূর্বের সঙ্গে আমাদের কথাবার্তা চূড়ান্ত হয়েছে। ফারিয়াকে এ ছবির জন্য পারিশ্রমিক হিসেবে ২৫ লাখ রুপি দেওয়ার কথা তারা বলেছেন।’

বোঝাই যাচ্ছে পুরো ব্যাপারটিতে প্রোডাকশন হাউস জাজের স্বার্থ জড়িত। অনেকে ধারণা করছে হয়ত যৌথ প্রযোজনার মতো কিছু হতে পারে। আবার কেউ বলছেন ‘আশিকী’ হিট করানোর জন্য গুজব। ঘটনা সত্যি হলে বলতে হয়, নায়িকা দিয়ে কলকাতার বাজারে প্রবেশ করেছে জাজ, এবার নায়িকা দিয়েই মুম্বাই যাচ্ছে।

যতদূর জানা যায় মাহি জাজের বাইরের যে কয়টি সিনেমায় অভিনয় করছেন– তার সবই দেখভাল করেছে জাজ। ফারিয়ার ক্ষেত্রে হয়ত জাজ স্রেফ ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট হাউস হিসেবে কাজ করছে। বিষয়টি অচিরেই পরিষ্কার হবে।



« (পূর্বের সংবাদ)