মেইন ম্যেনু

জাতিসংঘে ভারতকে হুঁশিয়ারি নওয়াজের

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের উরি সেনাছাউনিতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কোনো আক্রমণাত্মক তৎপরতা সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ।

বুধবার জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে দেয়া ভাষণে এই হুঁশিয়ারি করেন তিনি।

নয়াদিল্লি শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাধা উল্লেখ করে নওয়াজ শরিফ বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে শান্তি চায় পাকিস্তান। কিন্তু ভারত সংলাপে বসার জন্য অগ্রহণযোগ্য শর্ত আরোপ করছে।’

পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, উরির ঘটনায় ভারত সীমান্তে নজিরবিহীন অস্ত্র সমাবেশ করেছে। তবে ভারতের এই অস্ত্র সমাবেশ পাকিস্তান অগ্রাহ্য করবে না বলে হুঁশিয়ারি করে নওয়াজ বলেন, ‘ভারতের এই তৎপরতার যথাযথ প্রতিরোধে যা দরকার, তা-ই করা হবে।’

ভাষণে নওয়াজ শরিফ ভারত-পাকিস্তানের উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে বিশ্বসম্প্রদায়ে যেকোনো ধরনের নীরবতার পরিণামের ব্যাপারেও হুঁশিয়ারি করেন। তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ এশিয়ায় বেড়ে চলা উত্তেজনার বিপদের বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। এর পরিণাম তাদের ভোগ করতে হবে।’

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি স্পষ্ট বলতে চাই, কেবল পাকিস্তান নয় দুই দেশের স্বার্থেই আলোচনা প্রয়োজন। আমাদের মতপার্থক্য দূর করতে এটা অপরিহার্য।’

এর আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি হুঁশিয়ারি করেছেন, উরিতে হামলার ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের সাজার মুখোমুখি করা হবে।

এ ছাড়া উরি হামলার প্রতিশোধের জন্য পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ নিতে ভারত সরকারের প্রতি তাগিদ রয়েছে দেশটির বিভিন্ন পর্যায় থেকে। সেনাবাহিনীতেও এ নিয়ে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

গত রোববার উরিতে সন্ত্রাসী হামলায় ১৮ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন। এ হামলার জন্য পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিদের দায়ী করছে ভারত। এ জন্য সীমান্ত সংলগ্ন জঙ্গি আস্তানা গুঁড়িয়ে দিতে ভারত সীমিত পর্যায়ে সামরিক হামলা চালাতে পারে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর আসছে।