মেইন ম্যেনু

জাতীয়তাবাদী যুব মহিলা দলের আত্মপ্রকাশ

বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্য নিয়ে আত্মপ্রকাশ করলো জাতীয়তাবাদী যুব মহিলা দল।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর ইস্কাটনের অ্যাবাকাস কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই সংগঠনটির আত্মপ্রকাশ ঘটে।

এসময় সানজানা চৈতী পপিকে সভাপতি ও লায়ন হাসিনা মোর্শেদ কাকলীকে সাধারণ সম্পাদক করে আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বাংলাদেশের ৬৮ হাজার গ্রামের প্রতিটি ঘরে ঘরে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বার্তা প্রত্যেকটি মানুষের কাছে পৌঁছে দেবে জাতীয়তাবাদী যুব মহিলা দল।

এতে দাবি করা হয় , জাতি গঠন, সমাজ ও রাষ্ট্রের উন্নয়নে দারিদ্র বিমোচনে বিশেষ করে সব স্তরে নারীদের জিয়াউর রহমান যুব মহিলা দল গঠন করেছিলেন। কিন্তু কালের পরিক্রমায় সংগঠনটি হারিয়ে যায়।

সংগঠনের লক্ষ্য উদ্দেশ সম্পর্কে বলা হয়, যুব মহিলা দল এমন একটি প্লাটফর্ম তৈরি কর যাচ্ছে যেখানে অতি দরিদ্র থেকে শুরু করে সমাজের শীর্ষ পর্যায়ের নারীরাও কাজ করার সুযোগ পাবে। মৌলিক অধিকার নিয়ে যাতে নারীরা সমাজে মাথা উঁচু করে বাঁচতে পারে সে লক্ষ্যে কাজ করবে যুব মহিলা দল।

এই সংগঠন বিএনপির অঙ্গ সংগঠন হিসেবে কাজ করবে এবং নারীদের অধিকার বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। এছাড়া ২০ থেকে ৪৫ বছর বয়সী নারীরা এই সংগঠনের কর্মী হিসেবে কাজ করবে বলেও জানানো হয়।

সংগঠনের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে বিভিন্ন বয়সী বিপুলসংখ্যক নারী উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি ‍সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলে পদ পদবী বঞ্চিত নারীকর্মীরা আলাদা একটি প্লাটফর্ম তৈরির জন্য চেষ্টা করে আসছিল। সংগঠনের উদ্যোক্তারা বিভিন্ন সময় বিএনপির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন।

সংগঠনের নেতাদের দাবি, দলের শীর্ষ পর্যায়ের সম্মতি নিয়ে যুব মহিলা দলের আত্মপ্রকাশ হয়েছে।