মেইন ম্যেনু

জানেন কি, পাখিদের দাঁত নেই কেন?

শিশু বয়স থেকেই মানুষের মাঝে জানার কৌতূহল। কি, কেন এমন অনেক কিছুই মানুষ জানতে চায়। জানার জন্য অনেকে এ প্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত চষে বেড়ান। জানাটা যেন অনেকের কাছে একটা নেশার মত।

আর এমন জানার আগ্রহ থেকেই এবার একদল গবেষক সন্ধানে নেমেছিলেন পাখিদের দাঁত না থাকার কারণ সম্পর্কে জানতে। তারা অনুসন্ধান করে জেনেছেনও পাখিদের দাঁত থাকে না কেন?

গবেষণার সূত্রটা শুরু হয় অতি প্রাচীন পাখি আর্কিওপটেরিক্স থেকে। এ পাখিটির চোয়ালে দাঁত ছিল। কিন্তু বর্তমান সময়কার পাখিগুলোর দাঁত কেন নেই! এমনটা ভাবিয়ে তুলেছিল গবেষকদের। আর তাই তো তারা এর তথ্য অনুসন্ধানে নেমেছিলেন।

গবেষণার পর পাখি গবেষকরা জানিয়েছেন, মোটামুটি ১১৬ মিলিয়ন বছর আগে পাখিরা হারিয়ে ফেলে তাদের দাঁত। গবেষকরা বলছে, আর্কিওপটেরিক্সের নামক পাখিটির চোয়ালে দাঁত ছিল ১৮৬১ সালে। এরপর এ পাখিটিও দাঁত হারিয়ে যায়।

সেই ধারাবাহিকতায় বর্তমানের সব পাখিদেরই দাঁত নেই। ধারণা করা হয় তাদের পূর্বপুরুষ ছিলো একই। সেই পূর্বপুরুষ তার দাঁত তৈরি করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে।

গবেষক দল এই গবেষণার জন্য প্রায় ৪৮টি পাখি প্রজাতির জিন নিয়ে গবেষণা করেছেন। এই গবেষণায় মূলত দাঁত তৈরি করার ছয়টি জিনের ওপরে গুরুত্ব দেয়া হয় বেশি। এর ফলে দেখা গেছে, এই সব পাখিতে একই ধরণের মিউটেশন ঘটে, যার কারণে দাতের এনামেল এবং ডেন্টিন তৈরির জিন অকার্যকর হয়ে যায়।

এর ওপর ভিত্তি করে ধারণা করা হচ্ছে, আজ থেকে ১১৬ বছর আগে পাখিদের সেই পূর্বপুরুষ তার দাতের এনামেল ক্যাপ হারিয়ে ফেলে, আর সেই সময়েই পাখির শক্ত ঠোঁট দেখা দেয়। এই মিউটেশন থেকে একটা সময়ে পাখিদের ঠোঁট তৈরি হয় যাতে দাতের প্রয়োজন মিটে যায়।