মেইন ম্যেনু

জানেন, মন ভালো রাখতে রোজ ডায়েটে রাখুন মাছ, বলছেন গবেষকরা

আপনি কি সিফুড খেতে ভালবাসেন? সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি, কাঁকড়া বা স্কুইড কি রয়েছে আপনার প্রিয় খাবারের তালিকায়? বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন তা হলে আপনার অবসাদে ভোগার সম্ভাবনা অনেক কম।

এই বিষয়ে মোট দেড় লক্ষ প্রাপ্তবয়স্কের ওপর ২৬টি ভিন্ন পরীক্ষা চালান চিনের গবেষকরা। সেই গবেষণায় দেখা গিয়েছে মাছ বেশি খাওয়ায় অভ্যাস পুরুষদের মধ্যে অবসাদে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি ২০ শতাংশ ও মহিলাদের মধ্যে ১৬ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে দিতে পারে। মুড ভাল রাখতে কী ভাবে কাজ করে সামুদ্রিক মাছ?

গবেষকরা জানাচ্ছেন, সামুদ্রিক মাছের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। এই উপাদান রক্তে ট্রাইগ্লিসারাইড বা ফ্যাটের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। যা স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন যেমন করে, তেমনই সামগ্রিক স্বাস্থ্যেরও খেয়াল রাখে।

ঠিক তেমনই চিন্তা, কোনও কিছু শুনে মনে রাখা ও তাড়াতাড়ি শেখার মতো মস্তিষ্কের কাজও সুস্থ ভাবে করতে সাহায্য করে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। যা সামগ্রিক ভাবে প্রভাব ফেলে আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যে। এই ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড মস্তিষ্কে সিরোটোনিন, ডোপামাইন হরমোনের ক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে। এই দুই হরমোনের অভাবই অবসাদে ভোগার অন্যতম কারণ।

সিরোটোনিন মস্তিষ্ক ও শরীরের অন্যান্য অংশের স্নায়ুকোষের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করতে সাহায্য করে। অন্য দিকে, ডোপামাইন হার্ট ও মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালনে সাহায্য করে। সামুদ্রিক মাছে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড এই দুই হরমোনের ক্ষরণ বাড়াতে পারে।

ফলে মাছ খেলে মন ভাল থাকে বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। আবার মাছের মধ্যে থাকা প্রোটিন, ভিটামিন ও বিভিন্ন প্রকার খনিজ সামগ্রিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতেও সাহায্য করে। যার প্রভাবে স্বাভাবিক ভাবেই ভাল থাকে মনও।-আনন্দবাজার