মেইন ম্যেনু

জাপার কমিটি বিলুপ্ত করে নেতারা সব আওয়ামী লীগে

জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব ও ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে জেলা জাতীয় পার্টির সকল কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে সহস্রাধিক নেতাকর্মী আওয়ামী লীগে যোগাদান করেছেন। শুক্রবার রাতে পরশুরাম উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা যুবলীগ আয়োজিত যুব সমাবেশে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা আলাউদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী নাসিমের হাতে ফুল দিয়ে তারা নৌকায় ভিড়েন।

আওয়ামী লীগে যোগ দেয়া নেতা হলেন- জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. মোশাররফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক কেবিএম জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেম, সদর উপজেলা সভাপতি ইসমাইল হোসেন খোকন, ফেনী পৌর কাউন্সিলর সাইফুর রহমান, ফুলগাজী উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম, ওলামা পার্টির জেলা সভাপতি মাওলানা কায়কোবাদ প্রমুখ। তাদের সঙ্গে সহস্রাধিক নেতাকর্মীও আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন।

যোগদান অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ফেনী ২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকম, পরশুরাম উপজেলার চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার, পরশুরাম পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী সাজেল, জেলা যুবলীগের সভাপতি ও দাগনভূঞা উপজেলা চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতনসহ বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতারা।

জানা যায়, ২০১৪ সালে নিজাম হাজারী ফেনী পৌরসভায় মেয়র থাকাকালীন অবস্থায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফেনী-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। সে কারণে তাকে মেয়র পদটি ছেড়ে দিতে হয়। ৫ এপ্রিল ফেনী পৌরসভার উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে হাজী আলাউদ্দিন আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার শর্তে দল থেকে কোনো প্রার্থী দেয়া হয়নি। যার ফলে নিজাম হাজারীর অনুসারীরা ‘কেন্দ্র দখল’ করে হাজী আলাউদ্দিনকে মেয়র পদটি ভাগিয়ে দেন।

তার ঘনিষ্ঠ বিভিন্ন সূত্র জানায়, দল বদল না করার ক্ষেত্রে অনেকটা অনড় ছিলেন আপাদমস্তক এরশাদ ভক্ত এই রাজনীতিক ও ব্যবসায়ী। নব্বইয়ের পট-পরিবর্তনের পর অনেক বাঘা বাঘা নেতা জাতীয় পার্টি ছাড়লেও এরশাদের মায়া ছাড়েননি হাজী আলাউদ্দিন। ভিন্ন দলের নেতাদের সাথে সখ্যতা থাকলেও কখনো দল ত্যাগ করেননি, বরং বিগত বছরগুলোতে জাতীয় পার্টিকে ফেনীতে সরব রেখেছেন তিনি। তবে এখন ফেনী পৌরসভার মেয়র পদ পুনরায় পেতেই হাজী আলাউদ্দিনের এমন ডিগবাজি।

এদিকে নির্বাচন কমিশনের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে দেশের ২৪৫টি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মতো স্থানীয় সরকার নির্বাচনের এমন পরিস্থিতিতে ফেনী পৌরসভার বর্তমান মেয়র আলউদ্দিন পুনরায় মেয়র পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেন। এ অবস্থায় নৌকা প্রতীকে নির্বাচনের টিকিট পেতে বর্তমান মেয়র জাতীয় পর্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব আলাউদ্দিন আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। এমনটাই জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা।

এ প্রসঙ্গে জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি (কমিটি বিলুপ্ত) মোশারফ হোসেন বলেন, ‘কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব হাজী আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে ফেনী জেলার জাতীয় পার্টিসহ সকল ইউনিটের নেতারা আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বি.কম জানান, কেউ যদি সুবিধা পাওয়ার আশায় আওয়ামী লীগে যোগ দেয় তাহলে যোগদানের পর বিষয়টি নিয়ে দলীয় সভায় আলোচনা হবে।

এদিকে বরণ অনুষ্ঠান উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা শহরের শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়ক, ট্রাংক রোড, কলেজ রোড, রেলগেইট, একাডেমী রোড, পলিটেকনিক্যাল মোড়, ফেনী-পরশুরাম সড়কের অর্ধশতাধিক স্থানে তৌরণ নির্মাণ করে।