মেইন ম্যেনু

জামাতার হাতে শ্বশুর খুন

পাবনা পৌর সদরের শালগাড়িয়া সরদারপাড়া এলাকায় জামাতার ছুরিকাঘাতে শ্বশুর মোজাফফর হোসেন (৬০) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন শাশুড়ি রিজিয়া খাতুন (৫০)। তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর জামাতা ইকবাল হোসেন পলাতক রয়েছেন।

বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে তাদের ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মোজাফফর হোসেন। নিহত মোজাফফর জেলার সাঁথিয়া উপজেলার বাউশগাড়ি গ্রামের মৃত মহির উদ্দিন মাস্টারের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পাবনা শহরে পরিবার নিয়ে নিজ বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ইকবাল হোসেন ঢাকা থেকে পাবনা শহরের শালগাড়িয়া সরদারপাড়ায় শ্বশুরবাড়িতে আসেন। এ সময় পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে শ্বশুর মোজাফফরের বুকে ছুরিকাঘাত করেন ইকবাল। শাশুড়ি রিজিয়া খাতুন এগিয়ে এলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান তিনি। পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ৬টার দিকে মারা যান মোজাফফর হোসেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (পরিদর্শক-তদন্ত) আবদুল কুদ্দুস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আবদুল কুদ্দুস আরো বলেন, ‘কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে, তা আমরা নিশ্চিত নই। তবে শ্বশুরের সম্পদ কুক্ষিগত করতে জামাতা ইকবাল এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে।’