মেইন ম্যেনু

জামায়াতের বিচারে আইসিটি আইনে সংশোধন আগামী মাসে

সংগঠন হিসেবে জামায়াতে ইসলামীকে বিচারের আওতায় আনতে আগামী ফেব্রুয়ারি মাসেই মানবতাবিরোধী অপরাধ ট্রাইব্যুনাল (আইসিটি) আইনে সংশোধন আনা হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকারে মন্ত্রী এ কথা জানান। সকালে ১২ দফা দাবি নিয়ে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি মন্ত্রীকে একটি স্মারকলিপি দেয়। এ প্রসঙ্গে আনিসুল হক সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, আমরা আইনের ধারা সংশোধন করবো। তবে জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা না করার বিষয়টি সম্পূর্ণ আদালতের এখতিয়ার।

মুক্তিযুদ্ধ অস্বীকার করাকে অপরাধ আখ্যায়িত করে আইন প্রণয়নের দাবি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টিকারীদের শাস্তির আওতায় আনতে আইন প্রণয়ন করা হবে। এ ব্যাপারে সরকারের ‍উচ্চ পর্যায়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সাক্ষী সুরক্ষা আইন প্রণয়নের দাবি প্রসঙ্গে আনিসুল হক বলেন, এই আইন আছে। তবে এতে কিছু ধারায় সংশোধন আনতে হবে। এটা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় করবে।

এর আগে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবিরের নেতৃত্বে আইনমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নেতারা। প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন বিচারপতি শামসুদ্দীন চৌধুরী মানিক, অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।