মেইন ম্যেনু

জামিন পেলেন সালাহ উদ্দিন

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে শর্তসাপেক্ষে জামিন দিয়েছেন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী শিলংয়ের একটি আদালত।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি। শুক্রবার বিকেলে শিলংয়ের আদালত এ আদেশ দেন বলেও তিনি জানান।

সালাহ উদ্দিনের স্ত্রী হাসিনা আহমেদ এ জামিন আবেদন করেন। আবেদনে বলা হয়, সালাহ উদ্দিন আহমদ গুরুতর অসুস্থ। সুস্থ্য হওয়ার জন্য বিদেশে উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন তার।

এদিকে সালাহ উদ্দিন আহমেদ বর্তমানে কিডনি, হার্ট, মূত্রাশয় ও ত্বকের সমস্যায় ভুগছেন।

শিলং আদালতের একজন সরকারি কৌঁসুলি জানান, জামিন আবেদনে হাসিনা আহমদ উল্লেখ করেন যে, তার স্বামী সালাহ উদ্দিন চলতি বছরের ১০ মার্চ নিখোঁজ হন। সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় থানায় অপহরণের অভিযোগে জিডি করতে গেলে ঢাকার পুলিশ তা নথিভুক্ত করতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে তিনি এ ঘটনায় দেশে হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেন। আদালত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে প্রতিমাসে সালাহ উদ্দিনের ঘটনার তদন্তের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ দেন।

দুই মাস ‘নিখোঁজ’ থাকার পর ১১ মে শিলংয়ে সালাহ উদ্দিন আহমেদের খোঁজ পাওয়া যায়। সেখান থেকে তিনি স্ত্রী হাসিনা আহমদকে ফোন করেন। এর মধ্যদিয়ে সালাহ উদ্দিনের নিখোঁজ হওয়ার অবসান ঘটে।

কিন্তু তিনি কিভাবে শিলং গেলেন তার রহস্য এখন পর্যন্ত উন্মোচিত হয়নি।