মেইন ম্যেনু

নৌযান মালিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার

নৌযান শ্রমিকদের পর এবার ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছেন নৌ-মালিকরা। সোমবার নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের সঙ্গে বৈঠক শেষে ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন বাংলাদেশ কার্গো ভেসেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিসিভিওএ) এবং কোস্টাল শিপ ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) এর নেতারা।

প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন বি সি ভি ও এ’র সভাপতি মাহবুব উদ্দিন আহমেদ। প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন : কোয়াব-এর সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান লক্ষণ চন্দ্র ধর, বি সি ভি ও এ’র সহ-সভাপতি মো. খুরশীদ আলম, আলহাজ্ব মো. কামাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আহমেদ, আইন বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল আলম দীপু, সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মাহাবুব কবির ও সদস্য কাজী আবুল করিম। নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব অশোক মাধব রায় এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বেতন-ভাতা বৃদ্ধি ও নৌপথে চুরি-ডাকাতি বন্ধসহ ১৫ দফা দাবিতে ২০ এপ্রিল দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে সারা দেশে নৌযান ধর্মঘটের ডাক দেয় বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। এতে সারাদেশের নৌযোগাযোগ কার্যত অচল হয়ে পড়ে। এর পাঁচ দিন পর সচিবালয়ে নৌমন্ত্রী শাজাহান খানের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক শেষে ধর্মঘট কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা আসে শ্রমিকদের তরফ থেকে।

তবে ওই বৈঠকে শ্রমিকদের নতুন বেতন স্কেল নিয়ে গৃহীত সিদ্ধান্তের বিষয়ে দ্বিমত জানান নৌযান মালিকরা। মূলত ওই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদেই ধর্মঘট শুরু করেন নৌযান মালিকরা। সোমবার তা প্রত্যাহারের পর সব মিলিয়ে প্রায় ১১ দিন পর বাংলাদেশের নৌ-যোগাযোগ স্বাভাবিক হতে যাচ্ছে।