মেইন ম্যেনু

জিকার প্রকোপ বাড়ছে

জিকা ভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। মশা নিধনে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাচ্ছে না বলেই এর প্রকোপ বাড়ছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। খবর বিবিসির।

এ সম্পর্কে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক মার্গারেট চ্যান বলেন, ১৯৭০ এর দশকের একটি নীতিগত ব্যর্থতার ফলেই বর্তমানে পৃথিবীর প্রায় ৬০টির বেশি দেশে ব্যাপকভাবে জিকা ভাইরাসের বিস্তার ঘটছে।

স্বাস্থ্য সংস্থাগুলোর বার্ষিক সম্মেলনে বলা হয়েছে, ষাট এর দশকে মশা নিধনের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। কিন্তু ৭০য়ের দশকে এসে বেশকিছু কারণে সেটি ব্যর্থ হয়। কীটনাশকের বিরুদ্ধে মশার প্রতিরোধ শক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবেও মশা নিধন প্রকল্প ব্যর্থ হয়েছে। সেকারণেই এখন মূল্য দিতে হচ্ছে।

মানুষের বসবাসের বেশ কিছু পরিবর্তন পৃথিবীতে জীবাণুদের বিস্তারের সুযোগ করে দিয়েছে। জিকা ভাইরাসের জীবানু বহনকারী মশা কোন গর্ভবতী নারীকে কামড়ালে তার ভূমিষ্ঠ শিশু ভয়াবহ রকমের মস্তিষ্কের অস্বাভাবিকতা নিয়ে জন্মাতে পারে। এভাবেই ধীরে ধীরে জিকা ভাইরাস সাধারণ হুমকি থেকে ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। জিকা ভাইরাসকে বিশ্ব স্বাস্থ্যের জন্যে হুমকি বলে উল্লেখ করেছেন চ্যান।

৬০টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে এখন জিকা ভাইরাসের বিস্তার ঘটেছে। এটি ইউরোপেও পৌঁছে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।