মেইন ম্যেনু

তৎকালীন পাকিস্তানের গভর্নর

জিন্নাহর সেই নামফলক ভাঙলো মুক্তিযোদ্ধারা

রাজশাহীতে স্থাপনের ৪৬ বছর পর অবশেষে ভেঙে ফেলা হলো তৎকালীন পাকিস্তানের গভর্নর জিন্নাহর নামে তৈরি করা জিন্নাহ মিউনিসিপ্যাল পার্কের শেষ অস্তিত্ব হিসেবে পার্কের ফলকটি।

রোববার মুক্তিযোদ্ধা জেলা কমান্ডের উদ্যোগে নগরীর সিপাইপাড়া এলাকায় অবস্থিত নামফলকটি ভেঙে ফেলা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডা. আবদুল মান্নান, কেন্দ্রীয় কমান্ডের নির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান, মহানগর ডেপুটি কমান্ডার রবিউল ইসলাম, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহজাহান আলী বরজাহান, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সদস্যরা।

মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডা. আবদুল মান্নান বলেন, ‘জিন্নাহ যা করে গেছে, তা আমাদের দৃষ্টিগোচর না। আজ তার শেষ চিহ্ন এই রাজশাহীর বুক থেকে সরিয়ে দিলাম। যারা আমাদের ভাষা নিয়ে কটাক্ষ করে, আমাদের শহীদদের নিয়ে কটাক্ষ করে সেই পাকিস্থানীদের কোনো চিহ্ন কোথাও থাকবে না।

কেন্দ্রীয় কমান্ডের সদস্য মতিউর রহমান বলেন, ‘পাকিস্তানের গভর্নর জিন্নাহ আমাদের ভাষাকে হত্যা করতে চেয়েছিল। যার প্রতিবাদ করেছিল ভাষা শহীদরা। ভাষার জন্য আমাদের লাখ লাখ প্রাণের বলি দিতে হয়েছে। সেই জিন্নাহর কোনো চিহ্ন বাংলার মাটিতে থাকবে না।’

প্রসঙ্গত, ১৯৪৮ সালে পাকিস্তানের গভর্নর জিন্নাহ উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিলেন। আর ১৯৭০ সালের ৫ ডিসেম্বর নগরীর সিপাইপাড়া এলাকায় জিন্নাহ মিউনিসিপ্যাল পার্কের উদ্বোধন করেন রাজশাহীর তৎকালীন জেলা প্রশাসক কে এ জামান।