মেইন ম্যেনু

জিয়ার কবর অপসারণের কাজ শিগগিরই শুরু হবে

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারসহ সংসদ ভবন এলাকায় থাকা অন্য কবরগুলো অপসারণের কাজ খুব শিগগিরই শুরু হবে বলে জানিয়েছে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়। সেইসঙ্গে সংসদ ভবনের সুরক্ষার্থে বন্ধ হয়ে থাকা প্রাচীর নির্মাণের কাজও দ্রুত শুরু করা হবে।

জাতীয় সংসদ ভবনে বুধবার অনুষ্ঠিত সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়।

কমিটি সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে নবম জাতীয় সংসদের প্রথম থেকে শেষ অধিবেশন পর্যন্ত এবং চলমান দশম জাতীয় সংসদে সম্প্রতি সমাপ্ত অধিবেশন পর্যন্ত সময়ে সংসদের ফ্লোরে প্রধানমন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর দেয়া গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট প্রতিশ্রুতির উপর আলোচনা হয়।

এসময় জানানো হয়, নবম জাতীয় সংসদের প্রথম থেকে শেষ অধিবেশন পর্যন্ত এবং দশম জাতীয় সংসদে সম্প্রতি সমাপ্ত অধিবেশন পর্যন্ত সময়ে সংসদের ফ্লোরে প্রধানমন্ত্রী গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনে মোট ১৫টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। এরমধ্যে ৬টি প্রকল্প সম্পূর্ণ বাস্তবায়িত হয়েছে। আরও ৮টি প্রকল্প চলমান রয়েছে।

তবে একটি প্রকল্প স্থগিত রয়েছে। সংসদ ভবনের মূল নকশা হাতে না থাকায় সেই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না। সংসদ ভবনের মূল স্থাপত্য সৌন্দর্য অটুট রাখা এবং এর মর্যাদা সমুন্নত রাখতে যুক্তরাষ্ট্রের পেন্সিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কাইভে রক্ষিত লুই আই কানের মূল ৮৫৩টি নকশা খুব শিগগিরই দেশে এনে তার আলোকে কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়।

এছাড়া বৈঠকে রাজধানী ঢাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে নীচু জমি ভরাট বন্ধ করা এবং গুলশান লেকের সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ দ্রুতগতিতে শেষ করার তাগিদ দেয়া হয়েছে।

কমিটির সভাপতি কাজী কেরামত আলীর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য মো. আব্দুল কুদ্দুস, মো. শহীদুজ্জামান সরকার, এ, কে, এম শাহজাহান কামাল এবং মীর মোস্তাক আহমেদ রবি অংশ নেন। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।