মেইন ম্যেনু

জীবনের নানা স্মৃতি কীভাবে মনে রাখবেন দীর্ঘ সময়?

জীবনে প্রতিদিন কত কিছু ঘটে। সব কি মনে থাকে? অনেক সময় অনেক গুরুত্বপূর্ণ স্মৃতি মন থেকে মুছে যায়। কিছুতেই মনে পড়ে না। আবার মনে রাখার ক্ষমতা সকলের সমান হয় না। কারও স্মৃতিশক্তি প্রখর, কারওবা কম। কিন্তু পুরনো দিনের মিঠেকড়া স্মৃতি ফিরে দেখতে ভাল লাগে সকলেরই। কীভাবে মনের কোনায় তাজা রাখবে স্মৃতি? অনেকে ডায়েরি লেখেন কিন্তু সকলের তো আর সেই অভ্যাস নেই। তাই একটা সময় পর থেকে মন থেকে ক্রমশ মুছে যেতে থাকে পুরনো কথা।

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক জানিয়েছেন, মানুষ ঠিক কী কারণে সহজে ভুলে যায় আর কী কী করলে দীর্ঘ সময় মনে থেকে যায় পুরনো কথা বা ঘটনা। বহুদিন ধরে সমীক্ষা চালিয়ে তাঁরা দেখেন, কোনও একটি ঘটনার স্মৃতি যত বেশি ভাগ করে নেওয়া যায় অন্যদের সঙ্গে, বিশেষ করে সেই ঘটনার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছেন যাঁরা, তাঁদের সঙ্গে, তত বেশি তাজা থাকে সেই স্মৃতি।

অর্থাৎ শুধু একা একজন যদি মনের মধ্যে ভাবতে থাকেন এবং কারও সঙ্গে সেকথা ভাগ করে না নেন, তবে সেই কথা দীর্ঘ সময় মনে থাকার সম্ভাবনা তুলনামূলকভাবে কম, যদি না সেটি প্রিয়জনের জন্ম বা মৃত্যু, কোনও চাকরি, তীব্র কোনও অপমানবোধ ইত্যাদি জাতীয় কিছু হয়। কিন্তু ছোটখাট অ্যানেকডটসের ক্ষেত্রে যত বেশি তা অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করা যায়, তত বেশি মনে থাকে সেই স্মৃতি।-এবেলা