মেইন ম্যেনু

জীবন বদলে দিতে বিশ্বনবির ৫ উপদেশ

বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সমগ্র জাতির জন্য মহান শিক্ষক ও পথ-প্রদর্শক হিসেবে এ পৃথিবীতে আগমন করেছেন। মানুষের কল্যাণে অক্লান্ত শ্রম দিয়েছেন। দুনিয়া ও পরকালীন জীবনে উত্তম প্রতিদান লাভের পাথেয় হিসেবে বিশ্বনবির একটি অমূল্য হাদিস তুলে ধরা হলো-

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘কে এ কয়েকটি বিধান আমার নিকট থেকে গ্রহণ করবে এবং তদনুযায়ী আমল করবে? বা লোকদেরকে এরূপ শিক্ষা দেবে যেন তারা তদানুযায়ী আমল করে।
আমি বললাম, হে আল্লাহর রাসুল! (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আমি (এ বিধান) গ্রহণ করবো। অতঃপর তিনি আমার হাত ধরে পাঁচটি সংখ্যা গননা করালেন। তিনি বললেন-

১. আল্লাহ তাআলা যা কিছু নিষিদ্ধ করেছেন তা হতে বিরত থাক। এতে তুমি উত্তম ইবাদাতকারী হবে।
২. আল্লাহ তাআলা তোমার নসিবে (ভাগ্যে) যা কিছু বণ্টন করে দিয়েছেন, তাতেই সন্তুষ্ট থাকবে। এতে তুমি সর্বাপেক্ষা বড় সম্পদশালী (ধনী) হবে।
৩. তোমার প্রতিবেশীর সঙ্গে উত্তম আচরণ করবে, এতে তুমি পরিপূর্ণ ঈমানদার হবে।
৪. নিজের জন্য যা পছন্দ কর, মানুষের জন্যও তা পছন্দ করবে। এতে তুমি প্রকৃত মুসলমান হবে এবং
৫. অত্যাধিক হাসি থেকে বিরত থাকবে। কেননা বেশি হাসলে (মানুষের) অন্তর মরে যায়।’ (মুসনাদে আহমদ ও তিরমিজি)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে এ হাদিসের ওপর আমল করার তাওফিক দান করুন। মানুষের দুনিয়া ও পরকালীন জীবনের কল্যাণ দান করুন। এ হাদিসের ওপর আমলের প্রতিদান দিবসে বিশ্বনবির শাফায়াত লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।