মেইন ম্যেনু

জীবন বাঁচাতে জীবিকার মায়া ছাড়তে হবে

জীবন বাঁচাতে সিএনজি অটোরিকশা চালকদের জীবিকার মায়া ত্যাগ করতে হবে বলে মনে করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি।

মহাসড়কে সিএনজি অটোরিকশা বন্ধ করার পর গত এক সপ্তাহে সড়ক দুর্ঘটনা কমে গেছে দাবি করে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘দুর্ঘটনায় সিএনজি চালকরাই বেশি মারা গেছে। তাই মহাসড়কে সিএনজি বন্ধ করাই সরকারের সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল।’

তবে অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করার কারণে চালক ও যাত্রীরা যেন ক্ষতিগস্ত না হন ও দুর্ভোগে না পড়েন সে জন্য ফোর-লেনের পাশে বাই-লেন নির্মাণ করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে প্রায় ৯০ লাখ টাকা ব্যয়ে ফেনীর ফাজিলপুরে ফুটওভারব্রিজ উদ্বোধন শেষে মন্ত্রী একথা বলেন।

সড়ক পরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা মন্ত্রণালয়ের কঠিন চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশে পদ্মা সেতু হচ্ছে। ফোর লেন হচ্ছে। এসবের সুফল পেতে হলে সড়ক পরিবহনের শৃঙ্খলার বিকল্প নেই। শুধু থ্রি-হুইলারের জন্য দুর্ঘটনা হয় তা নয়, বেপোরোয়া ড্রাইভিংও দুর্ঘটনার অন্যতম প্রধান কারণ। ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সবিহীন চালকের ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।’

ফাজিলপুরে ফুটওভারব্রিজ উদ্বোধনের সময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- ফেনীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. এনামুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সামছুল আলম সরকার, প্রকল্প পরিচালক ইবনে আলম হাসান, অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক আবদুস সবুর, কুমিল্লা অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী জুনায়েদ আহসান সিবিব, ফেনী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সুশেন চন্দ্র শীল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুলাই সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় মাত্র চার দিনের সময় দিয়ে মহাসড়কে তিন চাকার যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এরপর পহেলা আগস্ট থেকে সারাদেশের জাতীয় মহাসড়কে তিন চাকার অটোরিকশা ও অযান্ত্রিক যান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়।