মেইন ম্যেনু

জীবিকার জন্য কতকিছুই না করে মানুষ!

জীবিকানির্বাহের জন্য মানুষকে কাজ করতে হয়। আর সবার কাজের ধরন এক নয়। হাজার ধরনের পেশায় মানুষ জড়িত। তবে কিছু পেশা আছে যা একেবারেই অদ্ভুত ধরনের। এমন কিছু অদ্ভুত পেশা নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন।

শিরচ্ছেদকারী: এই পেশার লোকদের সৌদি আরবে বেশি দেখা যায়। দেশটির সরকার চাকরির বিজ্ঞাপন দিয়ে এই পেশায় লোক নিয়োগ দেয়। এই ধরনের লোকদের কাজ হচ্ছে, মৃত্যদণ্ডপ্রাপ্ত লোকদের মৃত্যু নিশ্চিত করা। সৌদি আরবে অধিকাংশ শিরচ্ছেদের ঘটনা জনসম্মুখে করা হয়। তবে এই চাকরি পাওয়ার জন্য বিশেষ কোনো যোগ্যতার দরকার হয় না।

অ্যামাজন আমান্ডা: গ্রীক পুরাণে উল্লিখিত ‘অ্যামাজন’ হচ্ছে কৃষ্ণসাগরের উপকূলে বসবাসকারী বিশালদেহী নারী যোদ্ধা। তবে এই অ্যামাজন আমান্ডা কোনো যোদ্ধা নয়। আমান্ডার উচ্চতা ছয় ফুট তিন ইঞ্চি, ওজন ১২৭ কেজি, কোমড় ৬৩ ইঞ্চি এবং বুকের মাপ ৪৪ ডিডি। অ্যামাজন আমান্ডা একজন পেশাদার মডেল। আমান্ডা টাকার বিনিময়ে বামন বা খর্বকায় লোকদের সঙ্গে সময় ব্যয় করেন এবং শারীরিক বিভিন্ন কসরত করে থাকেন। তবে তিনি তার ক্লায়েন্টদের সঙ্গে কোনো প্রকার যৌন সম্পর্কে জড়ায় না।

পেশাদার আলিঙ্গনকারী: চিকিৎসাবিজ্ঞানে এটি প্রমাণতি যে, আলিঙ্গন চাপ ও উদ্বেগ কমায়, স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে, ভালো ঘুমাতে সহায়তা করে। কিছু ব্যক্তি চিকিৎসা বিজ্ঞানের এই তথ্যকে পুঁজি করে এটিকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছে।তারা নিজেদের ‘পেশাদার আলিঙ্গনকারী’ হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকে।

পোষা গোয়েন্দা: এটিও একটি অদ্ভুত পেশা। কারো পোষা প্রাণি হারিয়ে গেলে বা অপহৃত হয়ে গেলে খুঁজে এনে দেন পোষা গোয়েন্দা বা পেট ডিটেকটিভরা। অবশ্য তার বিনিময়ে বেশ মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিক পান তারা।

পেশাদার হুইসলার: মুখে শিস দিয়ে যারা গানের সঙ্গে তাল মেলান। সংগীত জগতে এই চাকরি বেশ অহরহ। অনেকে এই কাজটি করেন চলচ্চিত্র, টিভি বিজ্ঞাপনে, রেডিওতে, নাইটক্লাবে।

কান পরিষ্কারকারী: যদিও ইএনটি বিশেষজ্ঞরা কটন বাড, কাঠি ব্যবহার করে কান পরিষ্কারে নিষেধ করেন। তবুও অনেকেই পেশাদার কান পরিষ্কারকারীদের মাধ্যমে কান পরিষ্কার করে। ঢাকার বিভিন্ন পার্কগুলোতে এই পেশার লোকদের দেখা যায়।

চকোলেট প্রকৌশলী: চকোলেট প্রকৌশলীদের কাজ হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের উপাদান ব্যবহার করে মজার মজার চকোলেট রেসিপি তৈরি করা।

জীবন্ত মানেকুইন: বাংলাদেশে যদিও জীবন্ত মানেকুইন বা মানুষ মূর্তি দেখা যায় না। তবে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ফ্যাশন হাউস, অলঙ্কারের দোকান, প্রসাধন সামগ্রীর দোকানগুলোতে প্লাস্টিকের মূর্তির পরিবর্তে জীবন্ত মানুষেরা টাকার বিনিময়ে এই কাজটি করেন।

ইঁদুর বা কীটপতঙ্গ হত্যাকারী: টাকার বিনিময়ে তারা এই কাজটি করেন। ইঁদুর কিংবা অন্যান্য কীটপতঙ্গের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়লে এই পেশার লোকদের খবর দিতে পারেন।