মেইন ম্যেনু

জুতা পরলেই ভাসতে পারবেন শূন্যে!

স্বপ্নে আমাদের অনেকেই শূন্যে ভাসে! কিন্তু বাস্তবেও কি সম্ভব? স্রেফ দু’ পাটি জুতা পায়ে কি শূন্যে ভাসা যায়? সত্যজিৎ রায়, প্রফেসর শঙ্কুর ‘একশৃঙ্গ অভিযান’-এ বর্ণনা দিয়েছিলেন এরকম জুতার, যা পায়ে গলিয়ে তিব্বতি লামারা কিছুটা ভেসে থাকতে পারেন শূন্যে৷

সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানা গেছে।

মাধ্যাকর্ষণ টান থেকে শরীরকে মুক্ত করতো সেই জুতার সুকতলায় লাগানো এক প্রলেপ, যার ফর্মুলা করায়ত্ত কেবল লামাদের!

এবার অবশ্য কোনো তিব্বতি প্রলেপ ছাড়াই জুতা পায়ে দিয়ে ভেসে থাকা যাবে শূন্যে৷ বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন চুম্বকযুক্ত ‘আইট অফ দ্য ওয়ার্ল্ড’ জুতা তৈরি করলেন প্যাট্রিক জ্রেজিরি নামে এক মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার৷

মুনসাইন ক্রিয়া কোম্পানির এই জুতার নাম ‘২০১৬ মুনওয়াকার’৷

বলাই বাহুল্য, এটি পরে হাঁটলে নিজেকে হালকা ভারমুক্ত মনে হবে৷ মনে হবে যেন আপনি মহাশূন্যে হেঁটে বেড়াচ্ছেন৷ সবচেয়ে শক্তিশালী এন-৪৫ নিওডাইমিয়াম চুম্বকই এর কারণ৷

নিওডাইমিয়াম, লোহা ও বোরনের মিশ্রণ রয়েছে এতে৷ প্রতিটি স্তরে ১২-১৩টি চুম্বক, মাঝে বিশেষ গদি৷ এই সজ্জার ফলে পারস্পরিক বিকর্ষণ তৈরি হয় ও নিজেকে হালকা লাগে অনেক৷

১৮৩ কিলোগ্রাম পর্যন্ত ভর বহন করতে সক্ষম এটি৷