মেইন ম্যেনু

জেনে নিন আপনার চেহারার জন্য মানানসই আইব্রো শেপ কেমন হবে

হেয়ার কাটের মতই আইব্রো এর আকার ও সবার একই রকম হয়না। সঠিক আইব্রো চেহারার গঠনের উপর নির্ভর করে। সঠিক ভ্রু এর আকৃতি কেবল চোখের সৌন্দর্যের জন্যই গুরুত্ব পূর্ণ নয় বরং বয়স কমাতেও সক্ষম। সুন্দর ভ্রু থাকলে কম মেকআপ নিলেও চলে। celebrity eyebrow stylist Joey Healy বলেন, “নিখুঁত ভ্রু আপনাকে ফ্রেস, তরুণ, বিশ্রান্ত, স্বাস্থ্যবান এবং সার্বিক ভাবে আকর্ষণীয় করে তোলে”। আসুন তাহলে জেনে নেই বিভিন্ন আকারের চেহারার জন্য আইব্রোর আকার কেমন হওয়া উচিৎ।

১। মোটা চেহারার জন্য

যদি আপনি মোটা চেহারার অধিকারী হন তাহলে আপনার আইব্রো ধনুকের মত হতে হবে। তাহলে আপনার চেহারা পাতলা দেখাবে। যাদের চেহারা মোটা তাঁরা কখনোই ভ্রু খুব বেশি পাতলা করবেন না কারণ তাহলে আপনাকে বাজে দেখাবে।

২। পাতলা ও লম্বা চেহারার জন্য

পাতলা ও লম্বা চেহারার জন্য অর্ধচন্দ্রাকার শেপ এড়িয়ে যাওয়া ভালো এবং আপনার ভ্রু কিছুটা সোজা রাখা ভালো যাতে আপনার দীর্ঘ চেহারা সোজা ভ্রু এর সাথে সামঞ্জস্য পূর্ণ হয়। আপনি আপনার ভ্রু পাতলা রাখতে পারেন কিন্তু বৃত্তাকার ভ্রু এড়িয়ে যেতে হবে। আপনার ভ্রু খুব বেশি সোজা করে ফেলবেন না, এতে আপনাকে ভাবলেশশুন্য দেখাবে।

৩। ডিম্বাকৃতির চেহারার জন্য

যাদের ডিম্বাকৃতির চেহারার তাঁরা সৌভাগ্যবান, কারণ তাঁদের আইব্রোর আকার নির্বাচনের সুযোগ অপরিসীম থাকে। আপনি আপনার ভ্রু নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে পারেন। Jump Management এর মেকআপ আর্টিস্ট Jas Lee এর মতে, আপনার ভ্রু সবসময় ন্যাচারাল ও পরিচ্ছন্ন রাখুন। ঘন ও হালকা ধনুকাকৃতির ভ্রু ই সবসময় জয়ী হয় কারণ এটা সর্বজন প্রিয় এবং এটা ব্যাকডেটেড হয়না।

৪। হার্ট ফেসের জন্য

হার্ট আকৃতির চেহারা খুবই সূক্ষ্ম ও মেয়েলি হয়, তাই এঁদের ক্ষেত্রে গাঁড় ভ্রু এর চেয়ে নমনীয় ভ্রু হওয়া ভালো।

৫। সকল আকারের চেহারার জন্য

Healy.র মতে যেকোন আকারের চেহারাই হোকনা কেন এমন ৩টি নিয়ম আছে যা সকলের মানা উচিত।

· ভ্রুর মাথা শুরু হবে নাকের হাড়ের থেকে। এজন্য একটি পেন্সিল নাক বরাবর ঊর্ধ্ব ভাবে ধরলে এই পয়েন্ট টি খুব সহজেই খুজে পাওয়া যায়।

· আইব্রোর বক্রতা দুই তৃতীয়াংশ দূরে হবে। হ্যালি বলেন, “দিনে দিনে সবচেয়ে বড় যে ভুলটা দেখতে পাচ্ছি তা হল, ভ্রুর বক্রতা মাঝামাঝি স্থানে করা হচ্ছে যার ফলে ভ্রু রংধনু আকারের হচ্ছে”।

· আইব্রো ছোট করবেননা। হ্যালি বলেন, “ভ্রুর শেষের অংশটা অন্ততপক্ষে নাকের কোনা থেকে চোখের কোনা পর্যন্ত কাল্পনিক একটি রেখা পর্যন্ত হওয়া উচিৎ”।

টিপস:

· সবসময় মুখের আকৃতির সাথে মানানসই ভ্রু রাখুন।

· ভালো মানের আইব্রো পেন্সিল ব্যবহার করুন এবং ভ্রু লম্বা রাখুন।

· ভ্রুকে লক্ষণীয় করার জন্য ব্রাশ ব্যবহার করুন এবং কালো বা বাদামী আই শ্যাডো লাগান।

· প্রাকৃতিক ভাবে মোটা ভ্রু পাবার জন্য এক মাস যাবত প্রতিদিন ডিমের সাদা অংশ ও দুধ মিশিয়ে ভ্রু ম্যাসাজ করুন। এটা ভ্রু এর বৃদ্ধির জন্য পুষ্টি সরবরাহ করবে।

· আইব্রো এর আকার ঠিক করার পূর্বে আপনার বিউটিশিয়ানের সাথে কথা বলে আপনার চেহারার গড়ন ও কোন ধরণের ভ্রু মানানসই হবে তা জেনে নিন।

· দুই ভ্রুর মাঝামাঝি খুব বেশি দূরত্ব রাখবেননা।

· যদি আপনার জোড়া ভ্রু এর সৌভাগ্যবান হন তাহলে জোড়ার স্থানটি প্লাক করবেন না।

· আপনার যদি বড় নাক হয় তাহলে ভ্রুর সামনের অংশটি যথেষ্ট মোটা রাখুন। এবং ভ্রুর ধনুকের মত অংশটির উপরের দিক একটু উঁচু রাখুন এতে আপনার নাক পাতলা দেখাবে।



« (পূর্বের সংবাদ)