মেইন ম্যেনু

জেনে নিন আলুর বহু গুণের কথা

আলু অনেক পুষ্টি সমৃদ্ধ তা আমরা সবাই জানি। সুস্বাদু আলু ভাজি, ভর্তা, ঝোল, চিপস আরও কতো স্বাদেই না আমাদের সামনে হাজির হয়। কারো কাছে সবচেয়ে প্রিয় সবজিই হলো আলু। প্রতি ১০০ গ্রাম শক্তি ৭৫ কিলো ক্যালরি, প্রোটিন ২ গ্রাম, কার্বোহাইড্রেটস ১৬.৮ গ্রাম, ফ্যাট ০.২ গ্রাম, খাদ্যআঁশ ১.৩ গ্রাম, স্টার্চ ১৫ গ্রাম, চর্বি ০.১ গ্রাম, পানি ৭৫ গ্রাম, থায়ামিন (ভিটামিন বি-১) ০.০৮ মিলিগ্রাম, রায়বোফ্লাভিন (ভিটামিন বি-২) ০.০৩ মিলিগ্রাম, নিয়াচিন (ভিটামিন বি-৩) ১.১ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি-৮ ০.২৫ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ২০ মিলিগ্রাম, ক্যালসিয়াম ১২ মিলিগ্রাম, আয়রন ১.৮ মিলিগ্রাম, ম্যাগনেসিয়াম ২৩ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ৫৭ মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম ৪২১ মিলিগ্রাম, সোডিয়াম ৬ মিলিগ্রাম। আলুতে বিদ্যমান এসব উপাদান আমাদের শরীরের জন্য খুব উপকরী। আসুন জেনে নেয়া যাক আলুর উপকার সম্পর্কে।

* আলুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ আছে যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। একটি মধ্যম আকৃতির আলুর ত্বকে প্রায় ২৭ মিলিগ্রাম ভিটামিন ‘সি’ আছে।

* আলুতে থাকে লৌহ ও ক্যালসিয়ামের মতো খনিজ উপাদান হৃদরোগের অন্যতম প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে।

* আলুতে এক ধরনের প্রোটিনেস ইনহিবিটর থাকে, যা ক্যানসারের বিরুদ্ধে কাজ করে।

* প্রতিদিন পরিমিত পরিমাণে আলু খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। আলুতে রক্তচাপ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে রাখে। তবে মনে রাখতে হবে অতিরিক্ত আলু খেলে রক্তে চিনির পরিমাণ বেড়ে যায় এবং শরীর মুটিয়ে যায়।

* যথেষ্ট ক্যালরি থাকার কারনে ডায়রিয়া জনিত কারনে শরীরের ঘাটতি পূরনের জন্যও আলু একটি উত্তম পথ্য।

* আলুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-৬ রয়েছে যা মন ভালো রাখার জন্য কার্যকরী। মন ভালো করার দুটি উপাদান সেরেটোনিন ও ডোপামিন নামক নিওট্রান্সমিটার গঠনে আলু সহায়তা করে। নিওট্রান্সমিটার মস্তিষ্কে অনুভূতি আদান প্রদান করে থাকে এবং মানসিক চাপ কমিয়ে মন ভালো করতে সহায়তা করে।

* আলু মস্তিষ্ক সচল ও কর্মক্ষম রাখার জন্য প্রয়োজনীয় উপাদানগুলো সরবরাহ করে। আলুতে থাকা গ্লুকোজ, অক্সিজেন, ভিটামিন বি কমপ্লেক্স, এমিনো এসিড, ওমেগা-৩ ও অন্যান্য ফ্যাটি এসিড মস্তিষ্কের জন্য উপকারী।

* আলুতে থাকা ভিটামিন সি, বি কমপ্লেক্স, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, জিঙ্ক, ফসফরাস ত্বকের জন্য জরুরি। আলুর রস ত্বকে লাগালে বিভিন্ন দাগ, র‍্যাশ ও অন্যান্য সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এছাড়া রোদে পোড়া ভাবও দূর করতে সহায়তা করে আলুর রস।

* দেহকে শক্তিশালী করতে বিশেষ করে প্লীহা আর পাকস্থলীর কর্মক্ষমতা বাড়াতে আলু বিশেষ কার্যকর।

* বৃক্কের কার্যক্ষমতায় ঘাটতির সমস্যায় এই উদ্ভিদ কাজে লাগে।

* রাতকানা রোগে আলুতে থাকা ভিটামিন এ উপকারী।

* যাদের হজমের সমস্যার পাশাপাশি উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যা আছে তাদের জন্য আলু বিশেষ উপযোগী।