মেইন ম্যেনু

জেনে নিন কিভাবে চিনবেন আসল স্যামসাং ফোন

স্যামসাং ফোন দক্ষিণ কোরিয়ার এই প্রতিষ্ঠানের ফোনগুলোর কপি বা রেপ্লিকা ভার্সনও প্রচুর। নকল ও আসল স্যামসাং ফোন পাশাপাশি রাখলেও বোঝা আসল নলকের পার্থক্য বোঝা কঠিন।

মোবাইলের দোকান থেকে ফোন কিনলেও প্রতারিত হওয়ার সুযোগ থাকে। তবে স্যামসাং ফোনের ব্র্যান্ড শপ থেকে ফোন কিনলে প্রতারিত হওয়ার সুযোগ কম।

আসল স্যামসাং ফোন চেনার কিছু কৌশল রয়েছে। কৌশল গুলো জানা থাকলে নকল সেট কিনে প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। জেনে নেয়া যাক আসল ফোন চেনার উপায়ঃ

নকল সেটটিকে চেনার জন্য আপনার আসল সেটটি সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। এই ধারণা যে কোন ব্র্যান্ড শপ অথবা বন্ধু ও পরিচিতজনের কাছে থাকা স্যামসাং ফোন দেখে আপনি অভিজ্ঞতা নিতে পারেন। যে পার্থক্যগুলো আপনার চোখে পড়বেঃ

১। নকল মোবাইল সেটের ডিসপ্লের গ্লাস খুব নিম্নমানের হয়। ডিসপ্লের ওপর টাচ করলে ফোন আসল ফোনের মত রেসপন্স করে না।

২। নকল সেটে মোবাইল বডি থেকে স্ক্রিনের দুরত্ব বেশি থাকে। যার কারণে স্ক্রিন এবং বডির মধ্যে ফাকা জায়গা দেখা যায়। আসল সেটে এই ফাঁকা খুব কম থাকে।

৩। আসল সেটের মতো ডিসপ্লে উজ্জ্বল এবং ভাইব্রেন্ট হয় না।

৪। নকল সেটে অনেকগুলো সেন্সর কাজ করে না।

৫। মোবাইলের হোম বাটনটি আসল ফোনের মতো সঠিক জায়গাতে থাকে না। হোম বাটনের সাইজ ও একই হয় না।

৬। স্যামসাং এর লোগোটি মসৃণ এবং সমান্তরাল থাকে না। আসল ফোনে লোগোটি বেশ পাকাপোক্ত ভাবেই থাকে।

৭। আসল ফোনের আকার আর নকল ফোনের আকার সমান হয় না। যার কারণে পাশাপাশি সেট রেখে মাপ নিলে নকল সেট সহজে বোঝা যায়।

৮। হোম, পাওয়ার এবং ভলিউম বাটনগুলোর দুরত্ব আসল সেটের মতো কাছাকাছি হয় না।

৯। আসল ফোনের ব্যাক পার্ট খোলার পর যে ক্ষুদ্র যন্ত্রাংশ গুলো থাকে নকল ফোনের যন্ত্রাংশে ঠিক একই রকম হয় না।

১০। আসল ফোন আর নকল ফোনের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি সমান হয় না।