মেইন ম্যেনু

জেনে নিন গরমে ত্বকের আরামে করণীয় কাজগুলো

অতিরিক্ত রোদে ঘোরাফেরা ত্বকে পোড়া, জ্বালা, র‍্যাশ হওয়া থেকে শুরু করে বলিরেখা তৈরি, সানস্পট এমনকি ব্রণের সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তাই গরমে ত্বকের জন্য চাই বিশেষ পরিচর্যা। তাই এই প্রচণ্ড রোদ, ধুলাবালি, ঘাম দূষণ এগুলো মিলে গরমের সময়টায় ত্বককে সুস্থ ও সুন্দর রাখা বেশ কঠিন হয়ে পড়ে। এর উপর আসছে নববর্ষ। এই সময়ে ত্বককে সুন্দর রাখতে হলে মেনে চলুন কিছু নিয়ম। আসুন জেনে নেই নিয়মগুলি কি কি –

১। নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন বাইরে বের হওয়ার আগে সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না। বাইরে বের হওয়ার অন্তত ২০ মিনিট আগে সানস্ক্রিন ত্বকে লাগিয়ে নিন। দীর্ঘক্ষণ বাইরে থাকলে তিন থেকে চার ঘণ্টা পরপর আবার লাগিয়ে নেবেন। তবে সানস্ক্রিন কেনার আগে তাতে ইউভিএ এবং ইউভিবি প্রোটেকশন ক্ষমতা আছে কি না দেখে নিন।

২। গ্লিকোলিক এসিড সমৃদ্ধ ক্লিনজার ব্যবহার করুন যাদের ত্বক তৈলাক্ত গরমে তাদের ত্বকে সমস্যা বেশি দেখা দেয়। তাদের ত্বকে গ্লিকোলিক এসিড সমৃদ্ধ ক্লিনজার ভালো কাজ করে। এই উপাদান মরাকোষ দূর করে, কোষ পুনর্গঠনে সাহায্য করে। তবে এই ক্লিনজার রাতে ব্যবহার করবেন।

৩। এসপিএফযুক্ত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন ত্বকে আর্দ্রতা বজায় রাখার জন্য ময়েশ্চারাইজার সব ঋতুতেই ব্যবহার করা জরুরি। গরমের দিনে এসপিএফযুক্ত ময়েশ্চারাইজার আপনার ত্বকে আর্দ্রতা জোগানোর পাশাপাশি ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকেও রক্ষা করবে।

৪। লোশন ব্যবহার করুন ত্বককে সুস্থ ও সজীব রাখতে বাইরে থেকে ফিরে, গোসলের পর ও ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বকে লোশন লাগাতে ভুলবেন না।

৫। চোখ ও ঠোঁটের যত্ন নিতে ভুলবেন না চোখের নিচে বলিরেখা পড়ে সবার আগে। কারণ চোখের চার পাশের ত্বক খুবই সেনসেটিভ হয়। চোখের যত্নে যেসব আইক্রিম বা বাম ব্যবহার করা প্রয়োজন সেই জাতীয় ক্রিম চোখের চার পাশের ত্বকের পরিচর্যায় ব্যবহার করুন। ঠোঁটের যত্নে এসপিএফ সমৃদ্ধ লিপবাম ব্যবহার করুন।

৬। হাত ও পায়ের যত্ন নিন হাত ও পা-কে অবহেলা করবেন না। আলাদা করে নিয়মিত ম্যানিকিউর ও পেডিকিউর করবেন। গরমে যেহেতু স্যান্ডেল বেশি ব্যবহৃত হয়। তাই পায়ের যত্ন নেয়াটাও জরুরি। ত্বক সুস্থ ও সজীব রাখতে শুধু বাইরে থেকে পরিচর্যা করলে চলবে না। ভেতরের সুস্থতারও প্রয়োজন রয়েছে। এর জন্য খাবারের ওপর গুরুত্ব দিন বিশেষভাবে।

৭। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খান ত্বককে সুস্থ রাখতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবারের প্রয়োজন রয়েছে। ভিটামিন সি, ই, গ্রিন টি সূর্যের রশ্মির ক্ষতি থেকে ত্বককে রক্ষা করতে সাহায্য করে। প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে এমন খাবার আপনার খাবারের তালিকায় রাখুন।

৮। প্রচুর পানি পান করুন সারা দিনে প্রচুর পানি, শরবত, ফলের রস পান করুন যেন আপনার দেহে পানিশূন্যতার সৃষ্টি না হয়। পানি ডিহাইড্রেশন ও হিট স্ট্রোক থেকে রক্ষা করবে দেহকে। এ ছাড়া অতিরিক্ত তেল, মসলা যুক্ত খাবার বাদ দিয়ে সহজপ্রাচ্য খাবার রাখুন খাবারের তালিকায়।