মেইন ম্যেনু

জেনে নিন ঢালিউড নায়কদের কার কত আয়

বাংলা সিনেমার অবস্থা খুব একটা ভাল না হলেও বাংলা সিনেমা’র নায়কদের অবস্থা একেবারে খারাপ নয়। কারণ একেবারে নবাগত নায়কও ছবিপ্রতি ২ থেকে ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন।চলুন দেখি ঢালিউড নায়কদের কার কত আয়?

শাকিব খান

ঢাকাই ছবির শীর্ষ নায়ক শাকিব খান।স্বাভাবিকভাবেই তার পারিশ্রমিকও বেশি।এক যুগেরও বেশি সময় ধরে চলচ্চিত্র শিল্পে দাপিয়ে বেড়ানো এই নায়ক এখন ছবিপ্রতি ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকার মতো নিয়ে থাকেন।আগে ছবিপ্রতি ৪০ লাখ হাঁকালেও সিনেমার এই মন্দা সময়ে এসে তিনি তার পারিশ্রমিক কমিয়ে অর্ধেকে নামিয়ে এনেছেন।

আরিফিন শুভ

ছোটপর্দা থেকে বড় পর্দায় এসেছেন খুব বেশিদিন হয় নি।তবে ইতিমধ্যেই নিজের একটি শক্ত জায়গা দাঁড় করিয়ে ফেলেছেন তিনি।সম্ভাবনাময় নায়কদের কাতারে প্রথম তালিকাতেই রয়েছেন শুভ। এ নায়ক ছবি প্রতি ১০ লাখ টাকা হাঁকালেও কাজ করেন ৭ থেকে ৮ লাখে।

বাপ্পি চৌধুরী

জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘ভালোবাসার রঙ’ ছবি দিয়ে যাত্রা শুরু করেন চলচ্চিত্রে। প্রথমে ২ থেকে ৩ লাখ টাকা নিলেও এ নায়ক এখন ছবিপ্রতি নিচ্ছেন ৭ থেকে ৮ লাখ টাকা।

সাইমন সাদিক

নায়কদের মধ্যে প্রথম সারিতেই তার অবস্থান। সর্বশেষ মুক্তি পেয়েছে সাইমনের ‘ব্ল্যাকমানি’। ২০১২ সালে ‘জি হুজুর’ ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে পদার্পন ঘটে সাইমনের।আর জনপ্রিয়তা পান ‘পোড়ামন’ ছবি দিয়ে।শুরুতে ২ থেকে ৩ লাখ টাকা নিলেও এখন নিচ্ছেন ৫ থেকে ৮ লাখ টাকা।

নিরব

মডেলিং দিয়ে শুরু করেন নিরব।তারপর ছোটপর্দা হয়ে বড়পর্দায় অভিনয় করছেন এই নায়ক।বর্তমানে এই তারকা ছবিপ্রতি পারিশ্রমিক নিচ্ছেন ২ থেকে ৩ লাখ টাকা।

ইমন

শোবিজে ইমনের যাত্রাও শুরু হয় মডেলিং দিয়ে। এরপর ছোটপর্দা হয়ে বড় পর্দায় আসেন তিনি। শুরুতে ১ থেকে ২ লাখ টাকা নিলেও এখন নিচ্ছেন ৩ লাখ করে। তবে টাকার অঙ্কটা বরাবরই ওঠানামা করে এই নায়কের।